Date : 2022-10-06

নিম্নমুখী করোনা আবহে রাজ্যে এল ৭০ লক্ষ টাকার রেমডেসিভির!

সায়ন্তিকা ব্যানার্জি, সাংবাদিক : করোনা যখন প্রায় শেষের দিকে, তখন ৭০ লক্ষ টাকার রেমেডেসিভির পাঠাল কেন্দ্র! মাথায় হাত স্বাস্থ্য কর্তাদের। কিভাবে শেষ হবে এই বিপুল সংখ্যক ইঞ্জেকশন? সাধারণ মানুষের করের টাকায় প্রহসন চলছে? উঠছে প্রশ্ন

বলা হচ্ছে এই মুহুর্তে রাজ্যে করোনা গ্রাফ একেবারে নিম্নমুখী, আক্রান্তের সংখ্যা মাত্র ১১/১২ জন তখনই কেন্দ্র পাঠাল এই বিপুল রেমেডেসিভির। যার একেকটি ইঞ্জেকশনের দাম প্রায় ২৯০০ টাকা। ১ বছরের মধ্যেই এগুলির মেয়াদ ফুরিয়ে যাবে। তখন কি হবে? আর করোনা চিকিৎসায় রেমডেসিভির নিয়ে একাধিক বিতর্কও হয়েছে।

অন্যদিকে এই কথাও বলা হচ্ছে যদি আচমকা নতুন করে কোন ওয়েভ আসে আগামী কয়েক মাসে তাহলে কি আগাম প্রস্তুতি রাখা উচিত নয়? এই প্রসঙ্গে চিকিৎসক
ইন্দ্রনীল খাঁ বলছেন যে কেন্দ্রের তরফে এই উদ্যোগ ভুল নয়। কারণ করোনা আবার ফিরে আসে যদি, সেক্ষেত্রে তো আগাম প্রস্তুতি অবশ্যই নিয়ে রাখা উচিত।

আবার প্রশ্ন উঠছে কেন্দ্রের এই পদক্ষেপ কি সত্যিই সাধারণ মানুষের করের টাকায় প্রহসন নয়? কারণ একাধিক চিকিৎসক জানাচ্ছেন এখন আর এই পর্যায়ে রেমডেসিভির ব্যবহারের দরকার নেই।

আর যেন নতুন ভাবে কোন ঢেউ না আসে করোনার সেই কথাই বলছেন সকলে। তবে এই মুহুর্তে এই বিপুল ওষুধ কিভাবে ব্যবহার করা হবে তার উত্তর খুঁজছে স্বাস্থ্য দফতর।