Date : 2022-05-28

প্রতিভা গোপন থাকে না, সেটা যখন প্রকাশ পেল দেখে অবাক হলেন বিচারপতি হরিশ ট্যান্ডন ও বিচারপতি রবীন্দ্রনাথ সামন্ত

ষষ্ঠী চট্টোপাধ্যায়, সাংবাদিক:- প্রতিদিন সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত অজস্র মামলা চলে বিচারপতি হরিশ ট্যান্ডনের ডিভিশন বেঞ্চে।ফলে এত ব্যস্ততার মধ্যে তাঁর এজলাসের কর্মীদের সাথে খুব একটা প্রয়োজন না হলে কথা হয় না।কিন্তু তাঁর এসজালে ঘটলো অবাক কান্ড।

হাইকোর্টের কর্মীর প্রতিভায় অবাক হলেন স্বয়ং বিচারপতিদ্বয়। আমেচার ফটোগ্রাফি করে ইন্টারন্যাশনাল অ্যাওয়ার্ড এ ভূষিত হয়েছেন দেব দত্ত চক্রবত্তী।তার ছবি দেখে রীতিমতো হতবাক বিচারপতি হরিশ ট্যান্ডন ও বিচারপতি রবীন্দ্রনাথ সামন্ত।বিচারপতিদ্বয় জানালেন আমাদের মধ্যে বসে আছে এমন একজন প্রতিভাবান জানাই ছিল না।

হাইকোর্টের ৪ নম্বর এজলাসে পা ফেলার জায়গা নেই।সরকারি কর্মচারী থেকে আইনজীবী এবং সংবাদ মাধ্যমের প্রতিনিধিরা। মন দিয়ে আইনি সওয়াল জবাব শুনছেন সরকারি কর্মচারীদের মহার্ঘ্য ভাতা সংক্রান্ত মামলার। ভিড়ে ঠাসা এজলাসে আইনজীবী সৌমিত্র বাবু বলেন আমাদের মধ্যে এমন একজন বসে আছেন যিনি বিদেশের পুরষ্কার ছিনিয়ে এনেছেন। আপনি কি সেটা জানেন? বিচারপতিদের উদ্দেশ্য ওই আইনজীবী।অবাক হয়ে বিচারপতি জিজ্ঞাসা করেন তিনি কে? বিচারপতিদের ঠিক সামনে র আসনেই প্রতিদিন ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত বসে থাকেন দেবদত্ত চক্রবর্তী । কোর্ট কোয়াডিনেটের এর কাজ করেন তিনি

DA মামলার আইনি সাওয়াল-জাওয়াব পর্বের শেষে সরকারি আইনজীবী বিচারককে নির্দিষ্ট করে তার কথা বলেন । চোখের সামনে দেখে সরকারি আইনজীবী সৌমিত্র মজুমদার চুপ করে থাকতে পারলেন না স্বয়ং বিচারপতিদের জানালেন তার কথা। বিচারপতি নিজে তার তোলা ছবি দেখতে চাইলেন। তার তোলা ছবি দেখে রীতিমতো স্তম্ভিত হলেন বিচারপতি হরিশ ট্যান্ডন এবং পাশে সহকারী বিচারপতি রবীন্দ্রনাথ সামন্তের দিকে ছবিটি বাড়িয়ে দিলেন। আর যিনি এই ছবি তুলেছেন তিনি জানালেন নিজেকে একটা গণ্ডির মধ্যে ধরে রাখতে চান না তাই এই ছবি তোলার শখ।

“ধোঁয়ায় ঢাকা ওভেনে কাজ করা একজন রাস্তার খাবার বিক্রেতার ছবি তুলে একটি প্রধান খাদ্য ফটোগ্রাফি পুরস্কার জিতেছে”

ভারত-শাসিত কাশ্মীরের শ্রীনগরে তোলা কেবাবিয়ানা নামের একটি ছবির জন্য দেবদত্ত চক্রবর্তীকে পিঙ্ক লেডি ফুড ফটোগ্রাফার অফ দ্য ইয়ার ২০২২এর সামগ্রিক বিজয়ী হিসাবে নির্বাচন করা হয়।
সারা বিশ্বের ৬০ টিরও বেশি দেশ থেকে হাজার হাজার এন্ট্রি জমা দেওয়া হয়েছিল, এবং বিজয়ীদের একটি লাইভ স্ট্রিমড ইভেন্টের মাধ্যমে অনলাইনে ঘোষণা করা হয়েছিল।