Date : 2022-05-27

ব্ল্যাকহেডস নিয়ে চিন্তিত? – সমাধান হোক ঘরোয়া উপায়েই

সায়ন্তিকা ব্যানার্জি, সাংবাদিক: মুখের ত্বকের ক্ষেত্রে একটি বড় সমস্যা হল ব্ল্যাক হেডস। শরীরে হরমোনের পরিবর্তনের জন্য অনেকেরই মুখে, বিশেষত নাকে ও থুতনিতে ব্ল্যাক হেডস দেখা যায়। পার্লারে ফেসিয়াল বা ঘরেই নানান দামি প্রসাধনী ব্যবহার করে স্ক্রাবিং, ক্লিনিং ইত্যাদি কত কী না আমরা করি! কিন্তু তার পরেও সমস্যা কিন্তু থেকেই যায়! ব্ল্যাকহেডসের এই সমস্যা পুরোপুরি দূর করতে আজ জেনে নিন কিছু দুর্দান্ত কৌশল। কিছু ঘরোয়া কৌশলগুলি কাজে লাগিয়ে অনায়াসেই ব্ল্যাক হেডসের সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া সম্ভব।

১.প্রথমে মুখ ভাল করে ধুয়ে নিন। এ বার পরিষ্কার মুখে ব্ল্যাকহেডস আক্রান্ত অংশে ভাল করে মধু মাখিয়ে রাখুন। শুকিয়ে গেলে সামান্য উষ্ণ জলে মুখ ধুয়ে ফেলুন। মধু ত্বককে কোমল রাখার পাশাপাশি লোমকূপকে সংকুচিত রেখে ত্বককে টানটান রাখতে সাহায্য করে। ফলে ব্ল্যাকহেডসের সমস্যা থেকে দ্রুত মুক্তি পাওয়া সম্ভব।

২.ব্ল্যাকহেডসের সমস্যা মেটাতে হলুদের জুড়ি মেলা ভার। হলুদ, চন্দনের গুঁড়ো এবং কাঁচা দুধ একসঙ্গে মিশিয়ে ঘন করে মিশ্রণ তৈরি করে নিন। এই মিশ্রণ ত্বকের ব্ল্যাকহেডস আক্রান্ত স্থানে মাখিয়ে অন্তত মিনিট পনেরো রাখুন। তার পর জল দিয়ে ভাল করে ধুয়ে নিন।

৩.মাঝারি সাইজের একটা লেবুর রসের সঙ্গে চিনি মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করুন। ব্ল্যাকহেডস আক্রান্ত স্থানে ম্যাসাজ করুন চিনি গলে যাওয়া না পর্যন্ত। এর পর ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে ২ বার করুন। স্ক্রিনের উজ্জ্বলতা ফিরিয়ে আনতে আর এক্সফোলিয়েট করতে এর জুড়ি নেই।

৪.সামান্য সাদা টুথপেস্ট নিয়ে আক্রান্ত স্থানে লাগিয়ে রাখুন মিনিট পাঁচেক। এরপর নরম একটি টুথ ব্রাশের সাহায্যে আস্তে আস্তে স্ক্রাবের মতো করে ঘষতে থাকুন। ত্বকের মরা চামড়া উঠে আসার সঙ্গে সঙ্গে এটি ব্ল্যাকহেডসগুলোকে নরম করে ফেলে। ব্রাশ দিয়ে ঘষে মুখ ধুয়ে ফেলুন। ৫ মিনিট গরম জলের ভাপ নিন। এতে পোরসগুলো খুলে যাবে। এরপর আবারো ব্রাশ দিয়ে ঘষুন, দেখবেন খুব সহজেই ব্ল্যাকহেডসগুলো উঠে আসবে। সপ্তাহে ১ বার করুন।

৫.২ চামচ আমণ্ড গুঁড়ো আর ১ চামচ গোলাপজলএর পেস্ট তৈরি করুন। এবার এই পেস্ট সম্পূর্ণ মুখে লাগিয়ে সার্কুলার মোশনে ধীরে ধীরে মাসাজ করুন ২-৩ মিনিট। এর পর ৩০ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন। ব্ল্যাকহেডস দূর করার সাথে সাথে এটি স্ক্রিনে উজ্জ্বলতা ফিরিয়ে আনে।