Date : 2022-10-05

হাইকোর্টে সাময়িক রক্ষাকবচ পেলেন SSC প্রাক্তন উপদেষ্টা

ষষ্ঠী চট্টোপাধ্যায়, রিপোর্টার:- প্রাক্তন উপদেষ্টা শান্তিপ্রসাদ সিনহার বিরুদ্ধে এই মুহূর্তে সিবিআই কোন কঠোর পদক্ষেপ নিতে পারবে না সিবিআই, নির্দেশ বিচারপতি সৌমেন সেন ও বিচারপতি অজয় কুমার মুখোপাধ্যায়ের ডিভিশন বেঞ্চ ।

শুক্রবার ডিভিশনবেঞ্চে এস পি সিনহাপক্ষের আইনজীবী বিশ্বরূপ ভট্টাচার্য জানান এই মামলায় আমি সংযুক্ত ছিলাম না। এদিকে আমার বিরুদ্ধে নির্দেশ জারি হয়ে গেছে। তাই ওই অর্ডার কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে আবেদন করেছি
পরিপ্রেক্ষিতে বিচারপতি সৌমেন সেন বলেন আদালত প্রথমে সিবিআই অনুসন্ধানের প্রয়োজন জানাবে। তারপর সিবিআই তদন্ত করবে।প্রথমে সিবিআই এফআইআর করে তদন্ত করবে। অথবা সিবিআই নিজে থেকে করতে পারে।কিন্তু অভিযোগ দায়ের না করে কি করে তদন্ত।
ফের এস পি সিনহার আইনজীবী ইতিমধ্যে সিবিআই এর কাছে হাজিরা দিয়েছেন। তাই এই আবেদন গ্রহণযোগ্য নয়।
ডিভিশন বেঞ্চ সিবিআই এর আইনজীবীর খোঁজ করলে কেউ হাজির নেই।
মামলাকারি র পক্ষের আইনজীবী বিকাশ রঞ্জন ভট্টাচার্যের বক্তব্য এটা তদন্ত নয় অনুসন্ধান। এর পেছনে রাজনৈতিক ব্যক্তিরা জড়িত।
উত্তরে বিচারপতি সৌমেন সেন বলেন তাতে কি। সিবিআইয়ের নির্দিষ্ট নিয়ম আছে।
এসপি সিনহার আইনজীবী বিশ্বরূপ বাবু আদালতের দৃষ্টি আকর্ষণে বলেন অন্য যে মামলায় এস পি সিনহা কে যুক্ত করা আছে ওই মামলা গুলিতে ডিভিশন বেঞ্চে অন্তর্বর্তকালীন স্টাগিতাদেশ আছে।ডিভিশন বেঞ্চে আবেদন এর কথা বললেও আজ সিঙ্গল বেঞ্চ মানেন নি। উল্টে রাজ্যের গড়ে দেওয়া ৫ জনের কমিটিকে ফের আজ সিবিআই এর কাছে হাজিরার নির্দেশ দিয়েছেন।
বিচারপতি সেন আইনজীবী র উদ্দেশ্যে বলেন ইতি মধ্যে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু হয়েছে। এবারে সিবিআই সিধান্ত নেবে কিছু পাওয়া গেলো কি না। তার ওপর ভিত্তি করেই অভিযোগ দায়ের সিধান্ত নেবে সিবিআই।
এসপি সিনহার আইনজীবী বিশ্বরূপ ভট্টাচার্যের তরফে জানানো হয়েছে একই ধরনের মামলার সিবিআই নির্দেশ হয়েছে। কিন্তু ডিভিশন বেঞ্চের অন্তর্বর্তকালীন স্টাগিতাদেস আছে। অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি বাগ তার তদন্ত করছেন।

ডিভিশন বেঞ্চের রায়ের কপি দেখিয়ে রাজ্যের
এডভোকেট জেনারেল সুমেন্দ্র নাথ মুখোপাধ্যায় একই ইস্যু দেখুন মি লর্ড।একজন আইনজীবী হিসেবে আমি দুর্নীতির বিরুদ্ধে। যেখানে এনটায়ার গ্রুপ ডি অর্ডার স্থগিতাদেশ আছে।
বিচারপতি সৌমেন সেন প্রশ্ন আইনজীবী বিকাশ রঞ্জন ভট্টাচার্যের উদ্দেশে যেখানে বিচার বিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ আছে ডিভিশন বেঞ্চের । একই ইস্যুতে সেখানে আবার সিবিআই তদন্তের নির্দেশ কি করে সিঙ্গল বেঞ্চ দেয়?
আইনজীবী বিকাশ রঞ্জন ভট্টাচার্য্য বলেনএকই ইস্যু নয়।
বিচারপতি সেন পরিপ্রেক্ষিতে জানান আমরা কি করে মানব যেখানে বিচারবিভাগীয় তদন্ত চলছে। এতে তো সিবিআই দ্বিধায় পড়বে যেখানে একজন অবসপ্রাপ্ত বিচারপতি তদন্ত করছেন।
বিচারপতি সৌমেন সেন আইনজীবীদের উদ্দেশ্য বলেন একই ইস্যুতে বার বার সিবিআই কেন? দুর্নীতির অভিযোগ যখন রয়েছে তাহলে একজন প্রাক্তন বিচারপতি কে কমিটির মাথায় রেখে সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দিলে পুরো তদন্তের ওপর নজরদারি করা যেত… অভিমত ডিভিশন বেঞ্চের।

রাজ্য সরকারের হাই অফিসিয়ালের বিরুদ্ধে নিয়োগ দুর্নীতির গুরুতর অভিযোগ রয়েছে।
আগামী সোমবার এই ষড়যন্ত্রের সাথে যে বা যাঁরা জড়িত তাঁদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হোক বলেও দাবি সিঙ্গেল বেঞ্চের।
বেইনি নিয়োগের আবেদনকারীর প্রাক্তন উপদেষ্টা শান্তি প্রসাদ সিনহা অরিজিনাল ডকুমেন্ট রেজিস্টার জেনারেলের কাছে জমা দেবেন।এস পি সিনহা কে আদালতের নির্দেশ ছাড়া জিজ্ঞাসাবাদ করবে না।

আগামী সোমবার সকাল১০,৩০ মিনিটে ফের শুনানি।