Date : 2022-05-26

হেরিটেজ ভবনে হাতুড়ির ঘা! রাজ্যের কাছে রিপোর্ট তলব হাইকোর্টের।

ষষ্ঠী চট্টোপাধ্যায়, সাংবাদিক:- ব্রিটিশ সরকার তৈরি করেছিলেন বেঙ্গল গভর্মেন্ট প্রেস যা (বি জি প্রেস) নামে পরিচিত।সেই সময় থেকে সরকারি গেজেট থেকে শুরু করে বিভিন্ন সরকারি নির্দেশ নামা ছাপা হত এখানে।
১৯১৮ সালে তৈরি হয়েছিল বি জি প্রেস ভবনটি। এই ভবনটি জমির মালিক হচ্ছে শিল্প বাণিজ্য দপ্তর। বিজি প্রেস ভবনটি হিডকোকে হস্তান্তর করা হয়েছিল।বর্তমানে ঐতিহাসিক ভবনটি মেরামতির জন্য নাকি ভাঙ্গাভাঙি চলছে।যা নিয়ে কলকাতা হাই কোর্টে জনস্বার্থ মামলা দায়ের করা হয়।যদিও রাজ্যের হেরিটেজ কমিশনের চেয়ারম্যান জানিয়েছিলেন কোন রকম ভাবেই সেটা ভাঙা হচ্ছে না।
সোমবার প্রধান বিচারপতি প্রকাশ শ্রীবাস্ত ও বিচারপতি রাজর্ষি ভারদ্বাজের ডিভিশন বেঞ্চে মামলার শুনানির সময় মামলাকারিদের পক্ষের আইনজীবী বিকাশ রাঞ্জন ভট্টাচার্যের অভিযোগ এই ঐতিহ্য প্রাচীন ভবনটিকে ভাঙার অভিযোগ।হেরিটেজ আইনে ভাঙার নিয়ম নেই। সেই কারণেই জনস্বার্থ মামলা।

মামলাকারীদের আর অভিযোগ ঐতিহ্য প্রাচীন বিজি প্রেসের ভবনের কন্ট্রোলার বিল্ডিং একাংশ ভাঙা হচ্ছে এবং প্রাচীন সমস্ত মেশিনপত্র সরিয়ে ফেলার অভিযোগ তোলেন তাঁরা।যদিও রাজ্যের এডভোকেট জেনারেল সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করে জানান হেরিটেজ বিল্ডিং এর কোন অংশই ভাঙ্গা হচ্ছে না। হামলাকারীদের আরো অভিযোগ বিজি প্রেসের ওই অংশ থেকে আলিপুর চিড়িয়াখানা পর্যন্ত কথা শোনা যাচ্ছে গ্রীন্সিটি তৈরি করার পরিকল্পনার কথা শোনা যাচ্ছে।তাতে আদিগঙ্গা ক্ষতিগ্রস্ত হবে। পুরো ঘটনার আগামী তিন সপ্তাহের মধ্যে রাজ্যের হলফনামা তলব করেন প্রধান বিচারপতি ডিভিশন বেঞ্চ।