Date : 2022-10-05

উৎপল দত্ত স্মরণে নাটক ব্যারিকেড-এর ৫০ বছর।

রাকেশ নস্কর, রিপোর্টারঃ- এক চিরন্তন শিল্প যখন সেই সমকালিনতাকে অতিক্রম করে বিভিন্ন সময় প্রাসঙ্গিক হয়। তখন সেটা চিরকালিন। ব্যারিকেড নাটকটি সমকালিনতার মাত্রা অতিক্রিম করে চিরকালিনতায় পৌচেছে। যা 50 বছর পরেও একই প্রতিক্রিয়া দর্শকের থেকে অর্জন করেছে। তাই ব্যারিকেড সমকালিন হয়েছে, চিরকালিন বলেই। এমন বক্তব্য রাখলেন নাটক ব্যারিকে়ডের নির্দেশক দেবেশ চট্টোপাধ্যায়। 1930 সালে জার্মানিতে হিটলারের উত্থান। অন্যদিকে 1970 দশকে বাংলার রাজনীতির প্রেক্ষাপট তুলে ধরা হয়েছে এই নাটকে। বিশ্বব্যাপি নাত্সিদের বিরুদ্ধে মানুষের শান্তির জন্য আন্দোলন তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ দিয়ে শেষ হয়েছিল। এই সব পরিস্থিতি তুলে ধরা হয়েছে এই নাটকে।


সম্প্রতি উৎপল দত্তের ব্যারিকেড নাটকের 50 বর্ষ পুর্তি উপলক্ষে দেবেশ চট্টোপাধ্যায়ের নির্দেশনায় কলকাতার আর্ট একার্সে ব্যারিকেড নাটকটি মঞ্চে প্রদর্শন করা হয়। যেখানে সামিল ছিলেন বিশিষ্ট অতিথিরা। চিত্রশিল্পী শুভাপ্রসন্ন, অভিনেতা ধৃতিমান চট্টোপাধ্যায়, বিধাননগরের মেয়র কৃষ্ণা চক্রবর্তী, তৃণমূল নেতা ওম প্রকাশ মিশ্রা প্রমুখ ।
বাংলা নাটকের ইতিহাসে ব্যারিকেড নিজস্ব ইতিহাস তৈরি করেছে। উত্্পল দত্তের মূল প্রযোজনায় এই নাটক গত 5 দশকের পথ চলার ক্ষতিয়ান দেয়। পরিবর্তনের ক্ষতিয়ান। রাজনীতির পরিবর্তন, দর্শকের পরিবর্তন। পরিবর্তন দৃষ্টিভঙ্গির। কারণ এই নাটক পাঁচ দশক ধরে বিভিন্ন প্রযোজক সংস্থার হাত ধরে মঞ্চে জায়গা করে নিয়েছে। একসময় রাজনৈতিক সমস্যা ডানা বাঁধলেন আজও অপরাজিত ব্যারিকেড।