Date : 2022-05-29

গরমে এসি ছাড়াই ঘর ঠান্ডা রাখুন

রিমিতা রায়, নিউজ ডেস্ক : এপ্রিলের শুরুতেই জাঁকিয়ে পড়ে গিয়েছে গরম। মাত্রারিক্ত গরমে ইতিমধ্যেই নাজেহাল সকলেই। বিকেলের পর থেকে বাইরের তাপমাত্রা কমতে থাকে। এই সময়ে সব জানলা-দরজা বন্ধ করে রাখলেও আপনার ঘরের তাপমাত্রা কমবে না। তাই সন্ধের পর জানলা-দরজা খুলে রাখুন। ঘরে হাওয়া-বাতাস খেলতে দিন। একটু পরে ঘর ঠান্ডা হয়ে আসবে।জলবায়ু পরিবর্তনের বিরূপ প্রভাবের কারণে গরমের মাত্রা অনেক বেশি যা একইসঙ্গে অস্বস্তিকর ও ক্লান্তিকর। গরমে ঘরে, রাস্তায়, কোথাও রেহাই নেই।এই গরমে অনেকেই এসিতে থাকতে পছন্দ করেন। আবার অনেকেরই যাঁদের বাড়িতে এসি নেই, বা যাঁরা প্রাকৃতিক ভারসাম্য নষ্টের ভয়ে এয়ার কন্ডিশনার লাগাতে ইচ্ছুক নন। তাদের সবারই গরমে দুর্বিষহ অবস্থা।

ঘরে চলতে থাকা ফ্যান থেকেই মিলতে পারে আরাম। কখনও আবার সিলিং ফ্যান ঘুরলে হাওয়া পাওয়ার বদলে মনে হয় যেন আরও বেশি ঘর গরম হয়ে উঠছে। সেটা ফ্যানের জন্য নয়। সেক্ষত্রে হতে পারে ফ্যান অপরিষ্কার হয়ে রয়েছে। ফ্যানে ঝুল জমে রয়েছে। তা পরিষ্কার করলেই ফ্যান থেকে ভালো হাওয়া পাওয়া যায়। আবার ফ্যানের ঠিক নীচে একটা পাত্রে বরফ রাখতে পারেন। দেখবেন শীতল হাওয়া দিচ্ছে। বাড়িতে হট ওয়াটার ব্যাগ থাকলে সেটাকে বরফঠাণ্ডা জল ভরে দেখুন। আর ঘুমোনোর সময় বিছানায় এটিকে ব্যবহার করুন আইস প্যাক হিসেবে কাজে লাগানো যায়। গরমে গাঢ় রঙের পর্দা ব্যবহার করুন। হালকা রঙের পর্দায় গরম বাড়ে। দিনের বেলায় আলো জ্বালিয়ে রাখলে গরম বেশি লাগে। ঘরে গাছ রাখলেও গরমের দিনে বেশ আরাম পাওয়া যায়। অ্যালোভেরা, মানি প্ল্যান্ট গাছকে প্রাধান্য দিন। এই দুই গাছ ঘরের উত্তাপ শুষে নিতে দারুণ কাজ করে। ঘরে একটা ঠান্ডা আমেজ থাকে। গাছে অবশ্যই একদিন বাদে একদিন জল দিন। জানলার ধারে সাজিয়ে রাখতে পারেন গাছগুলি। হালকা সুতির চাদর ব্যবহার করুন। ঘর ঠান্ডা রাখতে ঘরে খেসের পর্দা ব্যবহার করা যেতে পারে। তা অনেকটাই আরামদায়ক হয়।