Date : 2022-05-26

লোগো-র দ্বায়িত্বে সাধারণ মানুষ! জোরকদমে এগোচ্ছে অভিষেকের ফুটবল ক্লাব

সঞ্জু সুর, রিপোর্টার : কলকাতা ফুটবল লিগের প্রথম ডিভিশনে খেলার জন্য আইএফএ-র কাছে আবেদন করেছে ডায়মন্ড হারবার ফুটবল ক্লাব। আবেদন মঞ্জুর হলে এই বছরেই কলকাতা ময়দানে দেখা যাবে নতুন এই ক্লাব কে। এটা পুরানো খবর। নতুন খবর হলো ক্লাবের অফিসিয়াল লোগো তৈরির জন্য ইতিমধ্যেই চিন্তাভাবনা করছেন ক্লাব কর্তৃপক্ষ। আর সেই লোগো তৈরির জন্য সাধারণ মানুষকে জড়িয়ে নিতে চাইছেন তারা।

গত বেশ কিছু বছর ধরে ডায়মন্ড হারবারের তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের উদ্যোগে এমপি কাপ হচ্ছে। সেই এম পি কাপ কে নিয়ে জেলার মানুষের উৎসাহ দেখে অভিষেক নিজেও উৎসাহিত হন। মূলতঃ তাঁর উদ্যোগে ও পৃষ্ঠপোষকতায় ডায়মন্ড হারবার ফুটবল ক্লাবের গঠন, তা বলাই যায়। এবার ক্লাবের সঙ্গে সাধারণ মানুষের আবেগ কে জড়িয়ে নিতে অভিনব ভাবনা ক্লাব কর্তৃপক্ষের। ক্লাবের পক্ষ থেকে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোষ্ট করে সাধারণ মানুষের কাছ থেকে ক্লাবের লোগো চাওয়া হয়েছে। যিনি জয়ী হবেন তাকে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের স‌ই করা একটি জার্সি দেওয়া হবে বলে জানানো হয়েছে।

১০ এপ্রিল বিকাল ৫ টার মধ্যে নিজেদের ডিজাইন করা লোগো জমা দিতে হবে। লোগো জমা দেওয়ার জন্য একটি ই-মেইল আইডি ও একটি হোয়াটসঅ্যাপ নম্বর ও দেওয়া হয়েছে। ই-মেইল আইডি হলো [email protected] আর হোয়াটসঅ্যাপ নম্বর টি হলো +৯১ ৯০৮৩০০ ৬৪১৯

অভিনব এই ভাবনা সম্মন্ধে ক্লাবের সচিব প্রাক্তণ ফুটবলার মানস ভট্টাচার্য আর প্লাস নিউজ কে জানালেন, “আমরা কয়েকটা লোগো দেখেছিলাম। তবে এটা তো খুব ভালো জিনিষ যে সবার মতামত নিয়েই মাননীয় সাংসদ ক্লাবের লোগো করতে চাইছেন। আসলে এই ক্লাবটার সাথে সকলেই যাতে কোনো না কোনোভাবে যুক্ত হতে পারেন সেটাই তিনি চাইছেন। ফুটবলের প্রসার যেমন হবে তেমন এলাকার মানুষ ও যাতে ফুটবলের প্রতি আকৃষ্ট হয়, তার‌ও একটা প্রচেষ্টা কিন্তু ওনার আছে।” সেই সঙ্গে ক্লাব সচিবের আরো মন্তব্য,” ক্লাবের লোগো বেশ ভালোই হবে। লোগোর ডিজাইন জমা পড়ার পর মাননীয় সাংসদ শেষ সিদ্ধান্ত নেবেন।”

এদিকে লোগো তৈরির বিষয়ে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কোনো মতামত নেওয়া হবে কিনা সেই বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে চাননি মানস বাবু। তবে একথা নিশ্চিত করেই বলা যায় একটা ক্লাবের সমর্থক বেস নতুন করে তৈরি করা যে কোনো ক্লাবের জন্য যথেষ্ট কঠিন একটা বিষয়। কিন্তু এই অভিনব ভাবনা যে সেই সমর্থক বেস তৈরির দিকে ডায়মন্ড হারবার ফুটবল ক্লাব কে এগিয়ে দেবে তা বলাই যায়।

এদিকে ক্লাব সূত্রে খবর, আগামি ৬ এপ্রিল থেকে ট্রায়াল শুরু হতে চলেছে। ফুটবলার বাছাই পর্ব চলবে চার পাঁচ দিন। পয়লা বৈশাখের দিন ঘটা করে বার পুজো করা হবে বাটা মাঠে। এই বাটা মাঠই হবে ডায়মন্ড হারবার ফুটবল ক্লাবের হোম গ্রাউন্ড।