Date : 2022-05-29

রাজ্যের দুটি বিস্ফোরণের ঘটনার NIA তদন্তের নির্দেশ ডিভিশন বেঞ্চের

ষষ্ঠী চট্টোপাধ্যায়, সাংবাদিক:- বীরভূমের পর পর দুটি বিস্ফোরণের ঘটনায় রাজ্যের তদন্তকারী সংস্থা তদন্ত করলেও হাইকোর্ট সেই তদন্তের নথি NIA কে হস্তান্তর করার নির্দেশ দিয়েছিলেন। যেহেতু এই ধরনের বিস্ফোরণ ঘটানো হয়েছে কিনা, বা এর সাথে আন্তর্জাতিক অপরাধ লুকিয়ে আছে কিনা তা রাজ্যের পক্ষে তদন্ত করা কঠিন হয়ে যাবে।

২০১৯ সালের বীরভূমের দুই বিস্ফোরণের তদন্তভার এবার এন. আই.এ কে দিল কলকাতা হাইকোর্ট।
দুই মামলার সব নথি এন. আই.এ কে হস্তান্তর করার নির্দেশ আদালতের। পাশাপাশি এন. আই.এ কে সব ধরনের সহযোগিতা করার নির্দেশ দিল আদালত। ” আইন অনুযায়ী এই ধরনের ঘটনা ঘটলে রাজ্যের তদন্তকারী সংস্থা একটি প্রাথমিক রিপোর্ট এন. আই.এ কে পাঠায়। রাজ্যের সেই রিপোর্ট বিবেচনা করে তদন্ত করা বা না করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে এন. আই.এ। কিন্তু এই ঘটনার ক্ষেত্রে এই ধরনের কোন রিপোর্ট পাঠানো হয়নি। যেহেতু রাজ্যের তদন্তকারী সংস্থার থেকে এন. আই.এ র ক্ষমতা আরো বিস্তৃত সেকারণে ন্যায়বিচারের স্বার্থে এই মামলার ভার এন. আই.এ – কে দেওয়া হল। ” – পর্যবেক্ষন আদালতের।

২০১৯ সালের ২০ শে সেপ্টেম্বর বীরভূমের লোকপুর থানার গাংপুর গ্রামের বাসিন্দা বাবলু মণ্ডলের বাড়ির টিনের চালা বিস্ফোরণের উড়ে যায়। ঐ বছরেই ২৯ শে আগস্ট সদাইপুর থানার রেঙ্গুনি গ্রামে হাইতুন্নেসা খাতুনের গোয়ালঘর উড়ে যায় বিস্ফোরণে। CID এই মামলাগুলির তদন্তভার গ্রহণ করে। পরে তদন্তভার গ্রহণ করে NIA।
রাজ্যের কাছ থেকে নথি না পাওয়ার অভিযোগে NIA বিশেষ আদালতের দ্বারস্থ হয়। নথি দেওয়ার জন্য রাজ্যকে নির্দেশ দেয় বিশেষ আদালত। নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ করে কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয় রাজ্য। সেই মামলাতেই গত ১৮ই এপ্রিল এই নির্দেশ দেয় বিচারপতি জয়মাল্য বাগচী এবং বিচারপতি বিভাস পট্টনায়কের ডিভিশন বেঞ্চ।