Date : 2022-10-03

প্রস্তাব ফেলে না রেখে বাস্তবায়নে জোর। নির্দেশ মুখ্যসচিবের।

সঞ্জু সুর, সাংবাদিক ঃ বিশ্ববঙ্গ বানিজ্য সম্মেলন শেষ হয়েছে এখনো ৪৮ ঘন্টা কাটেনি। এর মধ্যেই বিনিয়োগের প্রস্তাব নিয়ে বৈঠক সেরে ফেললেন রাজ্যের মুখ্যসচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদী। বুঝিয়ে দিলেন শিল্পায়ন নিয়ে রাজ্য ঠিক কতটা আন্তরিক।

বৃহস্পতিবার বানিজ্য সম্মেলনের মঞ্চে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন এবারের সন্মেলনে এখনও পর্যন্ত সর্বাধিক বিনিয়োগের প্রস্তাব এসেছে। যার পরিমান তিন লক্ষ বিয়াল্লিশ হাজার তিনশো পঁচাত্তর কোটি। মোট মৌ (MoU) সাক্ষর হয়েছে ১৩৭ টি। সেই সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী মঞ্চ থেকেই নির্দেশ দিয়েছিলেন শিল্প সংক্রান্ত বিভিন্ন এমপাওয়ার্ড কমিটিকে আরো বেশি সচল করতে হবে। এই বিষয়ে দ্বায়িত্ব দিয়েছিলেন রাজ্যের মুখ্যসচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদীকে। মুখ্যসচিবও কাজ ফেলে না রেখে ৪৮ ঘন্টার মধ্যে শিল্পের সঙ্গে যুক্ত বিভিন্ন দফতরের সচিব ও বিভিন্ন এমপাওয়ার্ড কমিটির সদস্যদের নিয়ে বৈঠক সেরে ফেললেন‌ শনিবার। এদিন ‘বিশ্ব বাংলা মেলা প্রাঙ্গণ’-এ মুখ্যসচিব আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন বিজিবিএস’২০২১ এর সঙ্গে জড়িত সব দফতরের আধিকারিকদের ও বিভিন্ন এমপাওয়ার্ড কমিটির সদস্যদের। সূত্রের খবর, সেখানেই মুখ্যসচিব সবাইকে জানান বানিজ্য সম্মেলনে যে সব বিনিয়োগের প্রস্তাব এসেছে, সেগুলো নিয়ে নিয়মিত তদবির করতে হবে। প্রয়োজনে সংশ্লিষ্ট বিনিয়োগকারি সংস্থার সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রেখে তাঁদের প্রস্তাবিত বিনিয়োগের যাতে বাস্তবায়ন হয় সেটা নিশ্চিত করতে হবে। মুখ্যসচিবের নির্দেশ সরকারি গড়িমসির জন্য যেন কোন কাজ থেমে না থাকে। পাশাপাশি বিনিয়োগ কে বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে সরকারের যা যা সাহায্য প্রয়োজন, সরকার সর্বোচ্চ প্রাধাণ্য দিয়ে সেই কাজ করবে বলেও উপস্থিত সকলকে জানিয়েছেন মুখ্যসচিব।

রাজ্যে তৃতীয় বারের জন্য ক্ষমতায় ফিরে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রায় নিয়ম করেই বারাবার বলছেন এবার তাঁর লক্ষ্য শিল্পায়ন ও কর্মসংস্থান। বানিজ্য সম্মেলন শেষ হ‌ওয়ার ৪৮ ঘন্টার মধ্যে মুখ্যসচিবের নেতৃত্বে প্রশাসনিক আধিকারিকদের এই ধরনের বৈঠক করার মধ্যেই শিল্পায়ন নিয়ে রাজ্যের আগ্রহ ও আন্তরিকতার চিত্র‌ই ধরা পড়ছে বলে মত অনেকের।