Date : 2022-10-03

দুয়ারে করোনার চতুর্থ ঢেউ? উর্ধ্বমুখী সংক্রমণ সেদিকেই ইঙ্গিত দিচ্ছে

মাম্পি রায়, নিউজ ডেস্ক : ফের উদ্বেগ বাড়াচ্ছে করোনাভাইরাস। তবে কি এবার চতুর্থ ঢেউ? হঠাৎ করে দেশে বাড়তে শুরু করেছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। বৃহস্পতিবারও উর্ধ্বমুখী দেশের কোভিড গ্রাফ। স্বাস্থ্যমন্ত্রকের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে নতুন করে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ২৩৮০ অর্থাৎ প্রায় ২৪০০। বুধবার সেই সংখ্যা ছিল ২ হাজারের সামান্য বেশি। শতকরা হারে ১৫ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে দৈনিক সংক্রমণ। অন্যদিকে একদিনে করোনাভাইরাসের জেরে ৫৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১২৩১ জন, যা দৈনিক সংক্রমিতের তুলনায় কম।

গত কয়েকদিন ধরেই সংক্রমণের হার বেশ ঊর্ধ্বমুখী। বুধবার ৬৫ শতাংশ বেড়েছিল সংক্রমণ। বৃহস্পতিবারও তা আরও বেড়ে গেল। এই মুহূর্তে দেশে অ্যাকটিভ করোনা রোগীর সংখ্যা ১৩,৪৩৩। একদিনেই যা বেড়ে গিয়েছে হাজারেরও বেশি। যদিও মোট আক্রান্তের তুলনায় তা ০.০৩ শতাংশ।

দেশের উর্ধ্বমুখী সংক্রমণের মাঝে সবচেয়ে বেশি চিন্তা দিল্লির কোভিড পরিস্থিতি নিয়ে। উদ্বেগ বাড়াচ্ছে উত্তরপ্রদেশও। এর বিরুদ্ধে লড়াই জোরদার করতে আবারও দেশজুড়ে টিকাকরণ-এ জোর দেওয়া হচ্ছে। ইতিমধ্যেই ১৮৭.০৭ কোটির বেশি ডোজ দেওয়া হয়েছে। কমবয়সিদের টিকা এবং প্রবীণদের বুস্টার ডোজ দেওয়া হচ্ছে বিনামূল্যে। আর ১৮-র বেশি বয়সীদের প্রিকশন ডোজও বাজারে এসে গেছে। যা ২৫০ টাকার বিনিময়ে পাওয়া যাচ্ছে। পুণের সেরাম ইনস্টিটিউট এই ডোজ সরবরাহ করছে। সবমিলিয়ে করোনার চতুর্থ ঢেউকে রুখতে চেষ্টা চালাচ্ছে কেন্দ্র ও রাজ্যগুলি। তবে সাধারণ মানুষ সচেতন না হলে তা কোনোমতেই সম্ভব নয় বলে জানান বিশেষজ্ঞরা। সংক্রমণ কমতেই গা ছাড়া মনোভাব দেখিয়েছে বেশিরভাগ মানুষ। তার জেরেই এই পরিস্থিতি বলে মনে করছেন চিকিৎসক মহলের একটা বড় অংশ।