Date : 2022-05-26

শ্রীলঙ্কাকে জ্বালানি দিয়ে সাহায্য ভারতের

রিমিতা রায়, নিউজ ডেস্ক : প্রবল আর্থিক সঙ্কটে শ্রীলঙ্কা। দেশের প্রসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপক্ষের উপর বার বার চাপ আসছে। দেশে বিদ্যুৎ সংকট থেকে চিকিৎসার পরিষেবা বেহাল। রাষ্ট্রপতি ইতিমধ্যেই অর্থনৈতিক সংকটের হাত থেকে দেশকে বাঁচাতে উপদেষ্টা কমিটির কাছ থেকে পরামর্শ চেয়েছেন। পাশাপাশি ডেপুটি স্পিকারের ইস্তফাও তিনি গ্রহণ করেননি। দেশের নাগরিকরা কীভাবে দিন চালাবেন তা নিয়ে চিন্তায় সকলেই। জানা গিয়েছে, গত দুই বছর ধরে পর্যটন শিল্প বিপুল লোকসান দেখেছে শ্রীলঙ্কা। চিন থেকে নেওয়া ঋণের বোঝায় বর্তমানে শ্রীলঙ্কায় চরম আর্থিক সঙ্কট দেখা দিয়েছে। অতিমারীকাল থেকে অর্থনৈতিক বিপর্যয়ের ফলে মূল্যবৃদ্ধি এবং বিদেশি ঋণের দায় চেপেছিল শ্রীলঙ্কার কাঁধে। এই দুইয়ের চাপেই প্রায় নাভিশ্বাস উঠেছে দেশের মানুষের।

এই অবস্থায় জরুরি অবস্থা জারি করেছিলেন প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপক্ষে। কিন্তু মঙ্গলবার গভীর রাতে তিনি এক বিবৃতিতে জানিয়ে দেন, জরুরি অবস্থার নির্দেশ তিনি প্রত্যাহার করে নিচ্ছেন।বিপদের মুহূর্তে বন্ধুর মতো প্রতিবেশী দেশের পাশে দাঁড়াচ্ছে ভারত। শ্রীলঙ্কায় এমন অবস্থা যে বহু জীবনদায়ী ওষুধ মিলছে না। জ্বালানির দাম আকাশ ছোঁয়া। এই পরিস্থিতিতে শ্রীলঙ্কার পাশে দাঁড়িয়েছে ভারত।শ্রীলঙ্কায় সঙ্কট থেকে মুক্তি দিতে ফের একবার জ্বালানি দিয়ে সাহায্য করল ভারত। জানা গিয়েছে, ৭৬ হাজার টন জ্বালানি সরবরাহ করা হয়েছে শ্রীলঙ্কায়। এই নিয়ে মোট ২ লক্ষ ৭০ হাজার টন জ্বালানি পাঠানো হল শ্রীলঙ্কায়। সূত্রে খবর, শ্রীলঙ্কার অর্থনীতিতে কিছুটা হলেও হাল ফেরাতে সাহায্যের সিদ্ধান্ত নেয় ভারত। এর আগে কেন্দ্রের তরফে ৪০ হাজার লিটার ডিজেল পাঠানো হয়েছিল। ১০ কোটি ক্রেডিট ডলারে ওই ডিজেল দেওয়া হয়েছিল। জানা গিয়েছে, এই দফায় ৩৬ হাজার মেট্রিক টন পেট্রল ও ৪০ হাজার মেট্রিক টন ডিজেল পাঠানো হয়েছে।