Date : 2022-05-28

কালের গর্ভে ক্লাইভ হাউজ, জরাজীর্ণ অবস্থায় কলকাতার প্রাচীন স্থাপত্য

মাম্পি রায়, নিউজ ডেস্ক কলকাতার বুকে দাঁড়িয়ে রয়েছে বাংলার প্রাচীন স্থাপত্যের অন্যতম নিদর্শন ক্লাইভ হাউস। 1757 সালে পলাশীর যুদ্ধের নায়ক রবার্ট ক্লাইভ ও ইংরেজ শাসনের ইতিহাসকে বয়ে নিয়ে চলেছে এই বাড়িটি ।   তবে চরম অযত্নে প্রায় ইতিহাসের গর্ভে তলিয়ে যেতে চলেছে ঐতিহাসিক  এই ক্লাইভ হাউজ।

বাংলাজুড়ে প্রাচীন স্থাপত্যের বহু নিদর্শন ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে ।   কলকাতার বুকে এমনই এক প্রাচীন স্থাপত্য দমদমের ক্লাইভ হাউস ।   দমদম নাগের বাজার মোড় থেকে পায়ে হাঁটা দূরত্বে আজও দাঁড়িয়ে আছে 270বছর পুরনো স্থাপত্যটি।

পলাশীর যুদ্ধের নায়ক মেজর জেনারেল রবার্ট ক্লাইভের বাগানবাড়ি হিসেবেই পরিচিত এই প্রাচীন বাড়িটি । পলাশীর যুদ্ধে নবাব সিরাজদৌল্লাকে হারিয়ে একে একে ইংরেজ দুর্গগুলি পুনরুদ্ধার করছিলেন সুচতুর রবার্ট ক্লাইভ ।দমদমের ওই এলাকা দিয়ে হাঁটতে হাঁটতেই একতলা বাড়িটি আবিস্কার করেন তিনি ।   পরবর্তীকালে দ্বিতল বাড়িতে পরিণত করেন ক্লাইভ।

একনজরে দেখে নেওয়া যাক ক্লাইভ হাউসের ইতিহাস- 

ক্লাইভ হাউসের ইতিহাস

সম্পদের আশায় ভারতে বাণিজ্য করতে আসে ইংরেজ ও ফরাসিরা

দক্ষিণ ভারতে দুই দেশের প্রতিযোগিতায় শুরু হয় কর্ণাটকের যুদ্ধ

পরবর্তীকালে কর্ণাটকের দ্বিতীয় যুদ্ধ হয়

ফরাসীদের পরাজিত করে ক্ষমতা দখল করে ইংরেজরা

ওই যুদ্ধেই উঠে আসেন রবার্ট ক্লাইভ

অত্যন্ত কূটনৈতিক ও ধুরন্ধর বুদ্ধি সম্পন্ন ছিলেন ক্লাইভ

অল্পদিনেই ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির পরিচালকের আসনে বসেন তিনি

1756সালে কলকাতার ইংরেজ দুর্গ ফোর্ট উইলিয়াম দখলের চেষ্টা করেন নবাব সিরাজদ্দৌল্লা

তখন জলপথে দক্ষিণ ভারত থেকে বাংলায় আসেন রবার্ট ক্লাইভ

1757সালে ফোর্ট উইলিয়াম সহ কলকাতা পুনরুদ্ধার করেন

এরপরই ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির জয়যাত্রা শুরু হয়

1757 সালে পলাশীর যুদ্ধের পর বাড়িটি দখল করেন রবার্ট ক্লাইভ

নিজের সৈন্যসামন্ত নিয়ে এই বাড়িতেই থাকতেন তিনি

বড়কুঠি নামে পরিচিত রবার্ট ক্লাইভের এই বাড়ি ।   ডাচ বা পর্তুগিজ বণিকদের গুদামঘরও ছিল বাড়িটি ।   জরাজীর্ণ অবস্থা হলেও ছোট ছোট ইটের তৈরি বাড়িটি আজও সেই পুরনো ইতিহাসকে বয়ে নিয়ে চলেছে ।   এলাকার পুরনো বাসিন্দারের মতে, দেশভাগের পর ব্রিটিশরা চলে গেলে বাড়িটি মালিকানাহীন হয়ে পড়ে ।   তারপরই সেখানে আশ্রয় নেয় পূর্ববঙ্গ থেকে আসা উদ্বাস্তু পরিবার ।   বছর 15 আগে বাড়িটি সংস্কারের দায়িত্ব নেয় ভারতীয় পুরাতত্ত্ব সর্বেক্ষণ ।   যদিও পরে সেই কাজ থমকে যায় ।   সম্প্রতি আবারও কাজ শুরু করেছে ভারতীয় পুরাতত্ত্ব সর্বেক্ষণ।

ভারতীয় পুরাতত্ত্ব সর্বেক্ষণ জানিয়েছে, ক্লাইভ হাউজ ও সংলগ্ন এলাকায় খননকার্য চালিয়ে  খ্রীষ্টপূর্ব দ্বিতীয় শতাব্দী থেকে অষ্টম ও নবম শতাব্দীর মুদ্রা, মাটির পাত্র সহ বহু জিনিস উদ্ধার হয়েছে ।  এখানেই শেষ নয়, ক্লাইভ হাউস থেকে একটি সুড়ঙ্গও তৈরি করা হয়ছিল ।   সেই সুড়ঙ্গও চলে গিয়েছে ইতিহাসের গর্ভে।

কলকাতার বুকে জরাজীর্ণ অবস্থায় দাঁড়িয়ে রয়েছে প্রাচীন স্থাপত্যটি ।   বাড়িটিকে ঘিরে ছিল দুটি মাঠ ।   বর্তমানে একটি মাঠ ফুটবল গ্রাউন্ড ও অপরটি পার্কে পরিণত হয়েছে ।   বাড়িটির চারপাশে গজিয়ে গিয়েছে কলোনী । বাড়িটির 100মিটারের মধ্যে নির্মাণ বেআইনি হলেও, তা সরানো হয়নি ।