Date : 2022-05-29

এভাবেও ‘বেঁচে’ থাকা যায়! – মরণোত্তর অঙ্গদানে অন্যের শরীরে থেকে যাবেন সংযুক্তা

সায়ন্তিকা ব্যানার্জি, সাংবাদিকঃ শহর কলকাতা ফের সাক্ষী থাকল মরণোত্তর অঙ্গদানের। কলকাতায় ফের মরণোত্তর অঙ্গদান। ৪১ বছরের চিকিৎসক সংযুক্তা শ্যাম রায়ের ব্রেনডেথ হয় এক বেসরকারি হাসপাতালে। তার মৃত্যুর পর তার পরিবার অঙ্গদানের সিদ্ধান্ত নেয়। তার লিভার পাবেন এপেলোর এক জন গ্রহীতা। ২ কিডনি যাবে আইএলএস নার্সিংহোমে। কর্নিয়া যাবে দিশাতে।

সত্যিই এভাবেও ‘বেঁচে’ থাকা যায়! মরণোত্তর অঙ্গদানের মধ্যে দিয়ে এভাবেই অন্যের শরীরে থেকে যাবেন সংযুক্তা। এনআরএস হাসপাতালের প্রাক্তনী সংযুক্তা। অনেক কঠিন পরিস্থিতিতে থাকা রোগীর চিকিৎসায় দক্ষতার সঙ্গে কাজ করে গেছেন তিনি। জনপ্রিয় ছিলেন তার সহকর্মী বন্ধু মহলেও। সেই হাসিখুশি সংযুক্তা যে আর নেই তা যেন কেউ বিশ্বাস করতেই পারছেন না। তবে এবার আজীবন অন্যের শরীরে বেঁচে থাকবেন সংযুক্তা।

সাত বছরের মেয়েকে একা করে দিয়ে অক্ষয় তৃতীয়ার সকালে চলে গিয়েছেন ৪৩ বছরের চিকিৎসক সংযুক্তা শ্যাম রায়। ম্যাসিভ কার্ডিয়াক অ্যারেস্ট হয়েছিল তার। শেষ অবধি ব্রেন ডেথ। তারপরেই এই সিদ্ধান্তের কথা জানায় তার পরিবার।

বুধবার সকাল থেকে সেই প্রক্রিয়া শুরু হয়। শহর সাক্ষী থাকে আরও এক গ্রিন করিডোরের। বিভিন্ন হাসপাতালে পৌঁছে যায় তার অঙ্গ। চোখের জল মুছে নিয়ে সংযুক্তাকে বাঁচিয়ে রাখতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ তার পরিবার এগিয়ে চলল গন্তব্যে।