Date : 2022-05-26

এসএসসির প্রশ্নের ভুলে চাকরি থেকে বঞ্চিত করা যাবে না। প্রার্থীকে অবিলম্বে প্রাপ্ত নম্বর দিয়ে চাকরি নিশ্চিত করার নির্দেশ আদালতের।

ষষ্ঠী চট্টোপাধ্যায়, সাংবাদিক : প্রাপ্ত নম্বর দিয়ে এস এল এস টির নবম-দশম শ্রেণীতে কেমিস্ট্রিতে শিক্ষক নিয়োগের পক্ষে রায় দিলেন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়। 2016 সালে এস এল এস টি নবম-দশম শ্রেণীতে বিভিন্ন বিষয়ে শিক্ষক নিয়োগের পরীক্ষা হয়েছিল। চূড়ান্ত ফলাফল বেরোনোর পরে রাজ্যে স্কুল সার্ভিস কমিশন উত্তরপত্র প্রকাশ করেছিল সেখানে দেখা যায় দুটি প্রশ্নের উত্তর ভুল ছিল। নবম দশম শ্রেণীর এস এল এস টি তে পরীক্ষার্থী সেরিনা পারভীন সঠিক উত্তর দেওয়া সত্ত্বেও রাজ্যে স্কুল সার্ভিস কমিশন তাকে সেই দুটি প্রশ্নের কোন নম্বর দেয়নি বলে অভিযোগ।
স্কুল সার্ভিস কমিশনের কাছে এ বিষয়ে বহুবার আবেদন করা সত্ত্বেও কর্তৃপক্ষের উদাসীনতার কারণে কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হতে বাধ্য হন পরীক্ষার্থী। সেরিনা পারভীন ওয়েটিং লিস্টে তার রেংকিং ছিল ৯। ২০২১ সালের মার্চ মাসে কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হন। বৃহস্পতিবার হাইকোর্টের বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় এজলাসে মামলা শুনানির জন্য উঠলে সেরিনা পারভীনের পক্ষের আইনজীবী আশীষ কুমার চৌধুরী একাধিক লেখক এর লেখা কেমিস্ট্রি বই আদালতের কাছে তুলে ধরেন এবং তাতে দেখা যাচ্ছে সেলিনা যে উত্তর গুলো দিয়েছিলেন তা সঠিক ছিল।
রাজ্যে স্কুল সার্ভিস কমিশনের পক্ষ থেকে আইনজীবী জানিয়েছেন বিষয়টি মূল্যায়ন করে দেখার পর সেরিনা পারভীন যোগ্য প্রার্থী হলে স্কুল সার্ভিস কমিশন যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণ করবেন।
উভয় পক্ষের বক্তব্য শোনার পর বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় রাজ্যে স্কুল সার্ভিস কমিশনকে নির্দেশ দেন সেরিনা পারভীনের উত্তর সঠিক মূল্যায়ন করে সে যদি যোগ্য প্রার্থী হয় এবং দু’নম্বর জব করে সে যোগ্য হন তাহলে স্কুল সার্ভিস কমিশন কে নিয়োগের বিষয় আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়।