Date : 2022-10-01

চা পান করতে অনেকেই ভালোবাসেন। তবে লিকার চা তে রয়েছে বহু গুণ উপকারিতা

শাহিনা ইয়াসমিন, সাংবাদিক: সবধরনের চায়ের মধ্যে সবথেকে ভালো হতে পারে লিকার চা পান করতে পারলে। সেক্ষেত্রে এই চায়ে থাকা ফাইটোকেমিক্যালস, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট পেটে ভালো রাখে, নিয়ন্ত্রণে রাখে সুগার। তাই দিনে ১-২ কাপ লিকার চা চলতেই পারে।
চায়ে চুমুক না দিয়ে সকালবেলাটা শুরুই হয় না। কারণ সকালের মেজাজ, এক কাপ চায়ের জুড়ি মেলা ভার। তবে যে কোনও ধরনের চায়ের তুলনায় লিকার চা খেলে মিলতে পারে বেশি উপকার। আসলে চায়ের মধ্যে দুধ মেশালে গুণ অনেকটাই কমে। তাই চায়ে দুধ না মেশানোই ভালো।


চায়ের মধ্যে রয়েছে ভালো পরিমাণে ফাইটোকেমিক্যালস, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, ফ্লুরাইডস, ট্যানিন ইত্যাদি। এই সমস্ত কিছু আপনার শরীর ভালো রাখতে খুবই সাহায্য করে। তাই প্রতিটি মানুষ চাইলেই নিজের পছন্দমতো সময়ে চা পান করতে পারেন। এক্ষেত্রে বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে চা পান করলে ডায়াবিটিস নিয়ন্ত্রণ থেকে শুরু পেটের স্বাস্থ্য ভালো থাকে। এবার আসুন লিকার চায়ের গুণ সম্পর্কে বিশদে জেনে নেওয়া যাক।


১. পেটের সমস্যা দূর থাকে- আগেই বলেছি, চায়ের মূল উপাদান হল ট্যানিন। এবার এই ট্যানিন পেটের সমস্যা দূর করতে পারে। এমনকী পেট ভালো রাখতে পারে ট্যানিন। তাই পেটের সমস্যা থাকলে লিকার চা পান করতেই পারেন।
২. ইমিউনিটি বাড়ায়- বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে চায়ে থাকা ভালো পরিমাণে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট পারে ইমিউনিটি বাড়িয়ে দিতে। এক্ষেত্রে ইমিউনিটি ঠিক থাকলে আপনি অনেক রোগের হাত থেকে রক্ষা পাবেন। তাই চিন্তার কোনও কারণ নেই।
৩. ডায়াবিটিস রোগীদের জন্য- ডায়াবিটিস রোগীরাও খেতে পারেন লিকার চা। এই চায়ে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ও অ্যান্টিইনফ্লেমেটরি গুণ সুগার কমাতে কিছুটা হলেও সাহায্য করে। তবে চিনি ছাড়া চা খেতে হবে।