Date : 2022-12-09

সাধারণ মানুষের জ্বালা বাড়িয়ে বুধবার থেকে ফের বাড়ছে রান্নার গ্যাসের দাম!

ষষ্ঠী চট্টোপাধ্যায়, সাংবাদিক : ফের মধ্যভিত্তের কপালে ভাঁজ পড়তে চলেছে। আগামীকাল থেকে বাড়ছে রান্না গ্যাসের দাম। একধাপে ৫১ টাকা অতিরিক্ত খরচ করতে হতে পরে সাধারণ মানুষের। আগামীকাল থেকে রান্না গ্যাসের সিলিন্ডার পিছু ১১০০ টাকা হতে পরে খবর কেন্দ্রীয় পেট্রোলিয়াম মন্ত্রক সূত্রের। আগামীকাল বুধবার থেকে রান্না গ্যাস বুক করলে আপনাকে অতিরিক্ত টাকা গুনতে হতে পারে। আজ (মঙ্গলবার) পর্যন্ত দেশজুড়ে রান্না গ্যাসের দাম দিল্লিতে ১০০৩ টাকা। মুম্বাইয়ে ১০০২.৫০ টাকা, কলকাতায় ১৪.২ কেজি ওজনের রান্না গ্যাসের দাম ১০২৯ টাকা। এছাড়া দক্ষিণ ভারতের চেন্নাইয়ে ১০৫৮ টাকা। শুধুমাত্র এই মে মাসে গ্যাস সরবরাহকারী সংস্থাগুলি রান্না গ্যাসের দাম বাড়িয়েছে 53 টাকা। প্রথম বার ৭ মে ২০২২ সালে দাম বাড়ানো হয়েছে ৫০ টাকা। তার পর ১৯ মে ২০২২ সিলিন্ডার পিছু ৩.৫টাকা দাম বৃদ্ধি পায়। অর্থাৎ ৫৩.৫০ পয়সা শুধুমাত্র মে মাসে গ্যাস সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান দাম বৃদ্ধি করেছে রান্না গ্যাসের। তবে তাদের সেই একই যুক্তি বিশ্ব বাজারে রান্না গ্যাসের দাম বৃদ্ধি পাচ্ছে তাই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে তারা। উল্লেখযোগ্য যে ভারতে গ্যাস সিলিন্ডারের দাম ইমপোর্ট প্যারিটি প্রাইসের উপরে নির্ভর করে নির্দিষ্ট করা হয় থাকে। ফলে রান্না গ্যাসের দাম বৃদ্ধি পুরোপুরি এলপিজির চাহিদার নিবৃতির বেশিভাগটাই আমদানির উপরে নির্ভর করে। আন্তর্জাতিক বাজারে রান্না গ্যাসের দাম বৃদ্ধি পেলে তার প্রভাব সরাসরি আমাদের দেশে পড়ে। মূলত ভারতের এলপিজি মূল্যবৃদ্ধির মানদণ্ড সৌদি আরব, ইরান, আমেরিকার মত দেশের বাজারের উপরেই নির্ভর করে। এই সব দেশের নির্ধারিত ঘারওয়া বাজারের কাস্টমস ডিউটি, সাফ সাফাই ও বিমা ইত্যাদির খরচ নিয়ে নির্ধারিত হয় রান্না গ্যাসের দাম। ফলে এই যুক্তি কে সামনে খাড়া করেই এলপিজি সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠানের দ্বারা রান্না গ্যাসের মূল্য নির্ধারিত হয়। একদিকে লাগামহীন মূল্যবৃদ্ধি সাধারণ মানুষের নাভিশ্বাস উঠছে।অন্যদিকে গোদের ওপর বিষ ফোঁড়ার মতো নিয়মিতভাবে বেড়ে চলেছে রান্নার গ্যাসের দাম।