Date : 2022-10-02

সিলেবাস আরও আধুনিক করায় জোর। ২জুন ফের বৈঠকে বসতে পারে নবগঠিত বিশেষজ্ঞ কমিটি

নাজিয়া রহমান, সাংবাদিক:-সর্বভারতীয় পরীক্ষায় বাংলার পড়ুয়াদের ভালো ফল করানোয় লক্ষ্য সরকারের। আর সেই লক্ষ্যকে বাস্তব রূপ দিতেই ঢেলে সাজানো হচ্ছে প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিকের সিলেবাস। ৭ মে স্কুলের পঠনপাঠন সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে প্রথমবার বৈঠকে বসে নবগঠিত বিশেষজ্ঞ কমিটি। সূত্রের খবর, সেই বৈঠকেই আধুনিক সিলেবাস তৈরির নির্দেশ দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী।

নতুন করে স্কুলশিক্ষা বিশেষজ্ঞ কমিটি ঢেলে সাজিয়েছে স্কুলশিক্ষা দপ্তর। তৃণমূল সরকার ক্ষমতায় আসার পর ২০১১ সালে তৈরি হয় স্কুলশিক্ষা বিশেষজ্ঞ কমিটি। কমিটির প্রধান কাজ ছিল প্রাক প্রাথমিক থেকে দ্বাদশ শ্রেণী পর্যন্ত সিলেবাসের নবরূপায়ন । শিক্ষকমহলের মতে, স্বাধীনতার পর থেকে দেশে প্রতি দশ বছর অন্তর সিলেবাস সংষ্কার করা হয়। নিয়ম মেনে রাজ্যে ফের স্কুলপাঠ্য বদলের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

নতুন স্কুলশিক্ষা বিশেষজ্ঞ কমিটি থেকে পুরোনো সদস্যদের অনেকেই বাদ পড়েছেন। নতুন কমিটিতে প্রতিটি বিষয়ে একজন করে অধ্যাপককে মেন্টর করা হয়েছে। শিক্ষামন্ত্রীর ওএসডিকে মেম্বার সেক্রেটারি ও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে আছেন ৯ জন মেন্টর। সদস্য করা হয়েছে ২২ জনকে। স্কুল শিক্ষকদের পাশাপাশি কমিটিতে রয়েছেন অধ্যাপকেরাও। ১ হাজার ৩০০ স্কুল নিয়ে হবে সমীক্ষা। সমীক্ষায় দেখা হবে বর্তমান সিলেবাসের ইতিবাচক ও নেতিবাচক দিকগুলি।
২জুন ফের বৈঠকে বসতে পারে নতুন এই কমিটি বলে জানা গেছে।