Date : 2022-05-27

যোগীরাজ্যে থানার ধর্ষণ, গ্রেফতার অভিযুক্ত অফিসার

মাম্পি রায়, নিউজ ডেস্ক : যোগীরাজ্যে গণধর্ষণের অভিযোগ জানাতে গিয়ে ধর্ষিতা 13 বছরের নাবালিকা। ঘটনায় গ্রেফতার অভিযুক্ত থানা অফিসার তিলকধারী সরোজ । প্রয়াগরাজ থেকে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে । ঘটনায় উত্তরপ্রদেশের মুখ্যসচিব এবং ডিজির কাছে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে রিপোর্ট তলব করেছে জাতীয় মানবাধিকার কমিশন । জানা গিয়েছে, 4জন মিলে ওই নাবালিকাকে ধর্ষণ করে । 22এপ্রিল কিশোরীকে প্রলোভন দেখিয়ে ভোপালে নিয়ে যায় 4যুবক । 4দিন ধরে তাকে সেখানে ধর্ষণ করে ললিতপুরে ফেলে দিয়ে যায় অভিযুক্তরা। সেই অভিযোগ জানাতে এক আত্মীয়কে নিয়ে থানায় যায় নির্যাতিতা। গোপন জবানবন্দি নেওয়ার নাম করে কিশোরীকে থানার একটি ঘরে ডেকে ফের নির্যাতন চালানো হয় বলে অভিযোগ থানা অফিসার তিলকারী সরোজের বিরুদ্ধে। ঘটনায় যোগী প্রশাসনের নিন্দায় সরব হয়েছে কংগ্রেস,সমাজবাদী পার্টি সহ বিরোধী দলগুলি।

এফআইআর-এ অভিযুক্ত পুলিশ অফিসারের পাশাপাশি ওই আত্মীয়া সহ ৬জনের নাম রয়েছে৷ অভিযুক্ত এসএইচওকে সাসপেন্ড করা হয়েছে। ললিতপুর জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ধর্ষণ ছাড়াও অভিযুক্ত পুলিশ অফিসারের বিরুদ্ধে পকসো আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে৷ ললিতপুরের পুলিশ সুপার নিখিল পাঠক জানিয়েছেন, একটি এনজিও ওই নির্যাতিতাকে তাঁর অফিসে নিয়ে আসে৷ এরপরই অভিযুক্ত অফিসারের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়৷

নির্যাতিতার পরিবারের সঙ্গে দেখা করেছেন সপা প্রধান অখিলেশ যাদব। পুলিশ প্রশাসনের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন তিনি। ঘটনায় কড়া পদক্ষেপ দাবি করেছেন তিনি। অন্যদিকে কংগ্রেস নেত্রী প্রিয়াঙ্কা গান্ধীও এই নিয়ে একাধিক টুইট করেছেন । টুইটে প্রিয়াঙ্কা লিখেছেন – ললিতপুরে ১৩ বছরের কিশোরীর গণধর্ষণ এবং থানায় অভিযোগ জানাতে গিয়ে ফের নির্যাতনের শিকার হওয়ার ঘটনা প্রমাণ করছে যে, বুলডোজারের শব্দে আইনব্যবস্থাকে দাবিয়ে রাখা হচ্ছে। থানাও যদি মহিলাদের জন্য সুরক্ষিত না হয়, তবে ওঁরা কোথায় যাবেন? থানার ভিতরে মহিলাদের সুরক্ষায় কি সরকার কোনও চিন্তাভাবনা শুরু করেছে? এধরণের ঘটনা রুখতে এবং আইনব্যবস্থায় উন্নতি আনতে কড়া পদক্ষেপ নেওয়া উচিৎ।

অন্যদিকে অভিযুক্ত এসএইচও তিলকধারী সরোজের স্ত্রী স্বামীকে নির্দোষ বলে দাবি করেছেন। রাজনীতি করে তাঁর স্বামীকে ফাঁসানো হচ্ছে বলেও জানান তিনি। তিলকধারীর দাবি, নির্যাতিতা মিথ্যে বলছে। মহিলা জানিয়েছেন তিনি অন্তঃস্বত্ত্বা। এই পরিস্থিতিতে কেউ তাঁর কথায় গুরুত্ব দিন। আইন ব্যবস্থায় পূর্ণ আস্থা রয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।