Date : 2022-05-28

উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানে স্টুডেন্টস সার্ভিস সেন্টার খোলায় উদ্যোগী ইউজিসি। পড়ুয়াদের মানসিক চাপ কমাতেই এই উদ্যোগ

নাজিয়া রহমান, সাংবাদিক:-শুধুমাত্র পড়াশোনা নয়। এবার পড়ুয়াদের মানসিক স্বাস্থ্যের উপরও নজর দিতে উদ্যোগী বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন। আর তাই উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে স্টুডেন্টস সার্ভিস সেন্টার খোলার নির্দেশিকা জারি করল ইউজিসি।

কোনও পড়ুয়া উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পা রাখার পর একদিকে পড়াশোনার চাপ যেমন বাড়ে অন্যদিকে পড়ুয়াদের মনে প্রভাব ফেলে পারিপার্শ্বিক নানা পরিস্থিতি। যা কখনও সখনও দীর্ঘমেয়াদি ছাপ ফেলে যায় পড়ুয়ার মনে। যার প্রভাব একজন ছাত্র বা ছাত্রীর কেরিয়ারের উপর পড়ে। পরীক্ষার ফলও আশানুরূপ হয় না। এতে একজন পড়ুয়া মানসিক ভাবে ভেঙে পড়ে। আর তাই শিক্ষাঙ্গনে ছাত্রছাত্রীদের শিক্ষাদানের পাশাপাশি এ বার থেকে নিয়ম করে তাদের মনের যত্ন নেওয়ার দায়িত্ব নিতে হবে কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়গুলিকে। প্রতিটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে খুলতে হবে স্টুডেন্টস সার্ভিস সেন্টার। যেখানে পড়ুয়াদের মানসিক চাপ মুক্ত করার পাঠ দেওয়া হবে। ইউজিসির তরফে খুব দ্রুত সেই নির্দেশিকা উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলিকে পাঠিয়ে দেওয়া হবে বলেই সূত্রের খবর।

ইউজিসি-র সূত্রের খবর, কলেজ বা উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানে তৈরি হওয়া ওই স্টুডেন্টস সার্ভিস সেন্টার বা ছাত্র পরিষেবা কেন্দ্রগুলির প্রাথমিক কাজ হবে, সংশ্লিষ্ট উচ্চ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সেই সমস্ত পড়ুয়াদের খুঁজে বের করতে হবে যারা একটুতেই মানসিক চাপের শিকার হন। তারপর তাঁদের চাপ মুক্তোর সাহায্য করা হবে। অনেক ক্ষেত্রেই রূপান্তরকামী ছাত্রছাত্রী, প্রত্যন্ত এলাকা থেকে আসা পড়ুয়া, অন্যরকম পরিবেশে বেড়ে ওঠা ছাত্রীরা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে মানসিক যন্ত্রণার শিকার হন। সেই বিষয়গুলিকেও গুরুত্ব দিয়ে দেখবে এই ছাত্র পরিষেবা কেন্দ্রগুলি বলে আশা ইউজিসি কর্তৃপক্ষের।

অনেক সময় মানসিক চাপের ফলে অনেক পড়ুয়া তার পড়াশোনা সম্পন্ন করতে পারেন না। ফলে অসমাপ্ত থেকে যায় তাদের ডিগ্রি। ইউজিসির দাবি, উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এই ধরনের স্টুডেন্টস সার্ভিস সেন্টার থাকলে কলেজছুট ছাত্রের সংখ্যা অনেকটাই কমাবে।