Date : 2022-06-26

পুজোয় ভ্রমণের বুকিং এখন থেকেই শুরু হয়ে গেছে, করোনা গ্রাফ ফের মাথাচাড়া দেওয়ায়, সিদুঁরে মেঘ দেখছেন পর্যটন ব্যবসায়ীরা।

শাহিনা ইয়াসমিন, সাংবাদিক:- একঘেমি জীবন থেকে মুক্তি পেতে মানুষ ছুটে যায় দূরে। করোনা-লকডাউনে জীবনটা কিছুটা থমকে ছিল। স্বাভাবিকের পথে এখন দৈনন্দিন জীবন। তাই এবার আর বাড়িতে বন্দী নয়। দুর্গাপুজোয় বেড়িয়ে পড়তে একদম প্রস্তুত বাঙালি। তাই পর্যটন ব্যবসা এখন তুঙ্গে।


প্রায় দুবছর ঘরবন্দি ছিলাম। এবার মুক্ত আকাশে ডানা মেলতে প্রস্তুত বাঙালি থেকে অবাঙালি। আর তিনমাস বাকি বাঙালির সেরা উত্সব দুর্গাপুজোর। পুজোর ছুটিতে বেড়াতে যাওয়ার জন্য এখন থেকেই বুকিং সেরে ফেলা হয়ে গেছে। ঘোরার জন্য সবাই এবার উদগ্রীব। পাহাড়, সমুদ্র, নাকি সমতল। সবজায়গায় ফুল বুকিং। করোনার কারণে ছন্দপতন ঘটেছিল ট্যুর অ্যান্ড ট্যুরিজম ব্যবসায়। যা এখন স্বাভাবিকের পথে। তাতে খুশি অরূপ মান্না ও পিন্টু দে-র মত পর্যটন ব্যবসায়ীরা। এখন প্রতিটি ট্যুর প্যাকেজ সিস্টেমে হয়ে থাকে। যা এবছর নাগালের মধ্যেই রাখা হয়েছে। ট্যুরিজম ব্যবসার সঙ্গেই ওতপ্রত যুক্ত থাকে পরিবহণ ও হোটেল ব্যবসা। তাই সবমিলিয়ে জমজমাট ট্যুরিজম ব্যবসা। ট্যুরিজম ব্যবসা ৭০ থেকে ৮০ শতাংশ ঘুরে দাঁড়িয়েছে বলে জানালেন অ্যাসোসিয়েশন অফ টুরিজ্যম সার্ভিস প্রোভাইডার অফ বেঙ্গলের সাধারণ সম্পাদক কমল কিশোর গুপ্ত। করোনা গ্রাফ ফের মাথাচাড়া দেওয়ায়, তারা তাই সিদুঁরে মেঘ দেখছেন। বেড়াতে যাওয়া নেশা। পরিবার নিয়ে প্রতিবছর ঘুরতে যান এমন মানুষ বহু রয়েছেন। দুবছর লকডাউনে ঘোরা হয়নি। তাই এবছর চুটিয়ে ঘুরতেই ব্যাগ কাঁধে নিয়ে বেড়িয়ে পড়তে রেডি ভ্রমণপিপাসু মানুষ।