Date : 2022-06-26

বালিতে ছবি এঁকে শেষ শ্রদ্ধা কেকে-কে।

শাহিনা ইয়াসমিন, সাংবাদিকঃ সংগীতশিল্পী কেকের প্রয়াণে শোকস্তদ্ধ গোটা দেশ। এভাবে আকস্মিক মৃত্যু মেনে নিতে পারছেন না তাঁর ভক্ত-অনুরাগীরা। সোশ্যাল মিডিয়ায় শোকজ্ঞাপন করেছেন বহু বিশিষ্ট শিল্পীরা। তাঁকে আলবিদা জানাতে এক অভিনব পদ্ধতিতে শেষ শ্রদ্ধা জানিয়েছেন স্যান্ড আর্টিস্ট কৌশিক বসু।
কৃষ্ণকুমার কুন্নাথ। তবে কে.কে নামেই বেশি পরিচিত। নয়ের দশক প্লেব্যাকে যে সমস্ত ভারতীয় গায়ক প্রথম সারিতে নিজেদের প্রতিষ্ঠিত করেছেন, তাঁদের মধ্যে অন্যতম কৃষ্ণকুমার কুন্নাথ, আমাদের শিল্পী কেকে। হিন্দি, তামিল, তেলেগু, কন্নড়, মারাঠি, গুজরাটি সহ বিভিন্ন ভাষায় গান গেয়েছেন তিনি। চিরদিনের মতো থেমে গেল তাঁর কণ্ঠ। ৫৩ বছর বয়সে না ফেরার দেশে চলে গেলেন বলিউডের বিশিষ্ট সঙ্গীত শিল্পী কেকে। তাঁকে শেষ শ্রদ্ধা জানাতে টুইটার ছেয়ে গিয়েছে শোকবার্তায়।

বিশিষ্টদের পাশাপাশি তাঁর অনুরাগীরা একের পর এক শোকবার্তায় তাঁদের মর্মস্পর্শী অনুভূতির কথা জানিয়েছেন। তবে এক অভিনব পদ্ধতিতে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করলেন স্যান্ড আর্টিস্ট কৌশিক বসু। বালি দিয়ে ছবি আঁকলেন তিনি, তাঁর প্রিয় শিল্পীর। ২০১৩-১৪ সালে কেকের সঙ্গে একই মঞ্চে অংশ নিয়েছিলেন বরাহনগরের বাসিন্দা এই কৌশিকবাবু। কেকের মৃত্যুতে শোকস্তবদ্ধ তিনিও।

কৌশিকবাবু মুম্বাই থাকাকালীন কাজের মাধ্যমে বহুবার সাক্ষাত্ হয় কেকের সঙ্গে। মানুষ হিসেবে কেমন ছিলেন কেকে- এই প্রশ্ন করায় কৌশিক বাবু বলেন, এইসব শিল্পীদের কোনও মাপকাঠি দিয়েই বিচার করা যায় না। ২০২২ এর শুরু থেকেই সংগীত জগতে একের পর এক নক্ষত্র পতন।

কেকে-র মৃত্যু যেন সেই ধারা অব্যাহত রাখল। এর আগে লতা মঙ্গেশকর, বাপ্পি লাহিড়ির মতো সংগীত দিগ্জদের স্যান্ড আর্টের মাধ্যম দিয়ে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন কৌশিকবাবু। একই ভাবে শ্রদ্ধা জানালেন তাঁর প্রিয় শিল্পীকে। ৯ এর দশক থেকে বহু বিখ্যাত গান উপহার দিয়েছেন সংগীতশিল্পী কেকে। তিনি চলে যাওয়ায় আজ মূর্হ্যমান সংগীতজগত। তবে তাঁর গান সারাজীবন অমর হয়ে থাকবে৤শিল্পী চলে যাবে, থেকে যাবে তাঁর শিল্প।