Date : 2022-08-11

বিয়ে বিভ্রাট, মামলা বন্ধুদের

পৌষালী সেনগুপ্ত, নিউজ ডেস্ক : বিয়ে করছেন পাত্র। ঘটা করে কার্ড ছাপিয়ে বন্ধুদের নিমন্ত্রণ করেছিলেন। সমস্ত বন্ধুরা ছুটি নিয়ে তাতে অংশ নিলেন। সেজেগুজে অংশ নিলেন বিয়েতে। কিন্তু মন ভাঙলেন খোদ বর বাবাজি। কারণ বন্ধুদের না নিয়েই বর চলে গেলেন বিয়ে করতে। সময়মতো বন্ধুরা এসেছিলেন বরের সঙ্গে বরযাত্রী হিসাবে যেতে। কিন্তু এসে হতাশ হলেন তাঁরা।কারণ বর একাই গেছেন বিয়ে করতে। ঘটনাটি ঘটছে হরিদ্বারের বাহাদুরাবাদ এলাকায়। বরের নাম রবি। রবির এমন ব্যবহারে অত্যন্ত অপমানিত বোধ করেছেন তাঁর বন্ধুরা। অপমানের জবাব দিতে তাই তাঁর বিরুদ্ধে আদালতে মামলা ঠুকে দেন বন্ধুরা। বর বাবাজি বন্ধুদের সময় দিয়েছিলেন বিকেল পাঁচটায়। সময় মতো তাঁরা উপস্থিত হন বিয়েবাড়িতে। এসে দেখেন সব ফাঁকা। তাজ্জব হয়ে যান সকলে।

তাঁদের ফেলে রেখেই বর চলে গিয়েছেন বিয়ে করতে।রবির বন্ধদের নিমন্ত্রণ করে ডাকার বিষয়ে দায়িত্ব ছিল রবির আরেক বন্ধু চন্দ্রশেখরের।রবির এমন কাণ্ডজ্ঞানহীন কার্যকলাপে বাকি বন্ধুদের সামনে মাথা নিচু হয়ে যায় চন্দ্রশেখরের। কারণ তিনিই সবাইকে অত্যন্ত উৎসাহ নিয়ে রবির বরযাত্রীতে যাওয়ার কথা বলে এসেছিলেন। যেতে না পেরে সবাই তাঁকেই দোষারোপ করেন। রাগে, দুঃখে, অপমানে চন্দ্রশেখর সেই মুহূর্তে আইনজীবীর সঙ্গে যোগাযোগ করেন। রবির বিরুদ্ধে ৫০ লক্ষ টাকার মানহানির মামলাও করেন তিনি। সেই মামলার পরবর্তী কি হবে জানা নেই। কিন্তু রবির বিয়েতে যেতে পারলেন না বন্ধুরা। আর অসম্মানিত হতে হল আরেক বন্ধু চন্দ্রশেখরকে। মোটের ওপর এক কথায় বিয়ে বিভ্রাট বলাই যায়।