Date : 2022-08-11

জার্সি উদ্বোধন হল ডালহৌসি ক্লাবের, চাঁদের হাট ক্লাব প্রাঙ্গনে

চলতি বছরে কলকাতা লিগের ফার্স্ট ডিভিশনে খেলবে ডালহাউসি ক্লাব। বরাবরই তারকা সমন্বিত দল করে তাঁরা। এবছরও কলকাতার লিগের জন্য ধারে ভারে শক্তিশালি দল করছে তাঁরা। প্রিমিয়ারের ওঠার লক্ষ্যে তাঁরা যথেষ্ট মরিয়া। শতাব্দী প্রাচীন ক্লাব শেষ কয়েকবছর প্রিমিয়ারে খেলতে না পারায় কর্তারা এবছর নতুন উদ্যোমে ফুটবলারদের ঝাঁপাতে বলছেন। আগে শনিবার ক্লাব তাঁবুতে জার্সি উন্মোচন করলেন ক্লাব কর্তারা। জমকালো সেই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন এআইএফএফের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট সুব্রত দত্ত, আইএফএ সচিব অনির্বাণ দত্ত, মোহনবাগান কিংবদন্তী সুব্রত ভট্টাচার্য, মোহনবাগান সচিব দেবাশিস দত্ত। ছিলেন ইস্টবেঙ্গল, মোহনবাগানের বর্তমান দলের ফুটবলার কিয়ান নাসিরি, হিরা মন্ডল, অরিন্দম ভট্টাচার্যরাও। ময়দানের বড় ক্লাবগুলোর কাছে সাপ্লাই লাইন বলতে এই ছোট ক্লাবগুলোই। বরাবরই এরিয়ান, জর্জের মতো দলগুলি যুব ফুটবলারদের তুলে আনে। আজকের রাহুল পাসোয়ানরাও ছোট ক্লাব থেকেই উঠে এসেছিল। সেই জায়গায় ডালহাউসি ক্লাবেরও দায়িত্ব বর্তায় আগামি দিনে বাংলার ফুটবলকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার। তার জন্য প্রয়োজন যথেষ্ট পরিমাণ অর্থ এবং আধুনিকতার ছোঁয়া। সেই কারণেই ক্লাব কর্তারা ফুটবল ছাডা়ও আগামী মরসুম থেকে ফুটসল নিয়েও বিভিন্ন চিন্তাভাবনা করছেন।

ডালহাউসি ক্লাবের সহ সভাপতি পার্থসারথী সেনগুপ্ত বলেন,” প্রতিবছর আমরা ভালো দল করি। এবারও সিএফএলের জন্য ভালো দল করেছি। শেষ দুই বছর সিএফএলের ফার্স্ট ডিভিশন না হওয়ায়, আমরা দল গড়তে পারিনি। এবছর ফুটবলাররা আগ্রহ নিয়ে রয়েছে লিগ শুরু হওয়ার। তাদেরই উদ্বুদ্ধ করতে এভাবে আমরা জার্সি উদ্বোধনের পথে হাঁটলাম। ফুটবলারদেরও এবার এগিয়ে আসতে হবে এবং নিজের সেরাটা দিতে হবে। সেক্ষেত্রেই সম্ভব ছোট ক্লাবের গরিমা অক্ষুন্ন রাখা এবং বড় ক্লাবে সাপ্লাই লাইন জারি রাখা। শুধু তাই নয়, আমরা চাই আমাদের ক্লাবের মাঠে বিভিন্ন ফুটসল এবং কর্পোরেট লিগ করতে যাতে আধুনিকতার ছোঁয়া লাগে বাংলার ফুটবলেও। মোহনবাগান, ইস্টবেঙ্গলের মতো বড় ক্লাব যদি ফুটসলে দল নামাতে রাজি হয়, তাহলে আরও ভালো হবে”।