Date : 2022-11-29

পাওনা আদায়ে দিল্লি যাবো। বর্ধমানের সভায় বললেন মুখ্যমন্ত্রী।

সঞ্জু সুর, সাংবাদিক ঃ বাংলা সড়ক প্রকল্পের টাকা আটকে রেখেছে কেন্দ্র সরকার। টাকা আদায়ে তৃণমূল সাংসদদের একটি প্রতিনিধিদল কে দিল্লিতে পাঠাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাতে কাজ না হলে নিজেই দিল্লিতে যাওয়ার হুঁশিয়ারি দিলেন তিনি।

একশো দিনের কাজের টাকা আটকে রেখেছে কেন্দ্র। সাম্প্রতিক সময়ে প্রায় নিয়ম করে এই বিষয়ে নিজের ক্ষোভ উগরে দেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শুধু একশো দিনের কাজের টাকা নয়, অন্যান্য যে সব প্রকল্পে কেন্দ্রীয় বরাদ্দ থাকে সেখানেও ঠিক সময়ে টাকা পাওয়া যাচ্ছে না। বারবার তদবির করেও টাকা না পাওয়ায় এবার দিল্লি যাওয়ার হুঁশিয়ারি দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সোমবার বর্ধমানে কৃষি দফতরের এক অনুষ্ঠানে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “বাংলার নাম থাকলে আপনাদের এত আপত্তি কেন ? গুজরাটের নাম থাকলেও তো আমার আপত্তি করার কিছু নেই। তাহলে বাংলা নামে আপত্তি কেন ?” এই সময়েই মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “বাংলা সড়ক প্রকল্পের টাকা আটকে রেখেছে। আমি আমার সাংসদদের দিল্লি পাঠাচ্ছি। যদি তাতে কাজ না হয়, তাহলে আমাকেই দিল্লি যেতে হবে।” প্রসঙ্গত সপ্তাহ খানেক আগেই রাজ্য বিধানসভার অলিন্দে বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী দাবি করেছিলেন কেন্দ্রীয় প্রকল্পে বাংলা নাম ব্যবহার করলে কোনো টাকা দেওয়া হবে না। তবে রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে আগেও বলা হয়েছিলো কেন্দ্রীয় প্রকল্পের বাংলা নামকরণ করা হয় যাতে রাজ্যের মানুষ প্রকল্পটি সম্মন্ধে সম্যক ধারণা করতে বা বুঝতে পারে। তবে এদিন মুখ্যমন্ত্রী যেভাবে জোরের সঙ্গে বলেছেন ‘বাংলার বাড়ি’, ‘বাংলার সড়ক’ সব নাম থাকবে, দেখি কে আটকায়, তাতে আগামিদিনে রাজ্য সরকার যে নাম বদলের দাবি কে বিন্দুমাত্র পাত্তা দিতে রাজি নয়, সেটা বোঝা যায়।