Date : 2022-06-30

যুবভারতীতে হংকং-কে উড়িয়ে দিল ভারত, 4-0 গোলে জয় সুনীলদের

হংকংয়ের বিপক্ষে নিয়মরক্ষার ম্যাচেও বড় জয় ভারতের। অনবদ্য ফুটবল খেললেন ভারতের সুনীল-মনবিররা। টানা তিন ম্যাচে গোল করলেন সুনীল ছেত্রী। ম্যাচের শুরু থেকেই হংকং রক্ষণে চাপ দিতে শুরু করে স্টিম্যাচের ছেলেরা। 2 মিনিটেই এগিয়ে যায় ভারত। গোল করেন আনোয়ার আলি। এরপর প্রথমার্ধের শেষ লগ্নে গোল করেন সুনীল ছেত্রী। জোড়ালো শটে বল জালে জড়িয়ে দেন ভারতীয় ফুটবলের আইকন। 51 মিনিটে গোলের সুবর্ণ সুযোগ হাতছাড়া করেন সুনীল। বলা ভালো সুনীলের দুরন্ত শট ততোধিক দক্ষতায় বাচিয়ে দেন হংকংয়ের গোলরক্ষক ইয়াপ। 60 মিনিটে জোড়া পরিবর্তে করে ফ্রেশ লেগ ইনজেক্ট করেন ভারতের ক্রোয়েশিয়ান কোচ ইগর স্টিম্যাচ। মনবির এবং লিস্টনকে এনে দুই উইংয়ে গতি বাড়ান ভারতের কোচ। এরপর সুনীলদের খেলায় গতি বাড়তে থাকে, অ্যাটাকে বলও বেশি পেতে থাকে ব্লু টাইগার্সরা। 76 মিনিটে অবশ্য

দলের সেরা তারকাকে তুলে নেন স্টিম্যাচ। সুনীলকে তুলে ব্র্যান্ডন ফার্নান্ডেজকে নামান স্টিম্যাচ। 85 মিনিটে ম্যাচের ফল 3-0 করেন সুপার সাব হিসেবে মাঠে নামা মনবির সিং। ম্যাচের চতুর্থ গোলটি করে আরেক সুপার সাব ইশান পন্ডিতা। বরাবরই দ্বিতীয়ার্ধে মাঠে নেমে গোল করতে ভালোবাসেন ইশান। ফের একবার সেই কাজটাই করে দেখালেন তিনি। আগেই এশিয়ান কাপের যোগ্যতা অর্জন করেছিল ভারত। এবার গ্রুপ শীর্ষে থেকেই এশিয়ান কাপে গেল সুনীলরা। 50 হাজারি যুবভারতীর বর্ষণশিক্ত মাটিতেও যে অনবদ্য ফুটবল স্টিম্যাচের ছেলেরা খেললেন এদিন, তাতে এবার এশিয়ান কাপে ভালো কিছুর স্বপ্ন দেখতেই ভারতীয় ফুটবল প্রেমীরা।

ভারতীয় ফুটবল দলের জন্য সুখবর। এএফসি এশিয়ান কাপের যোগ্যতা অর্জন করে ফেলল সুনীল ছেত্রী-সন্দেশ ঝিংগানরা। মঙ্গলবার হংকংয়ের বিপক্ষে মাস্ট উইন ম্যাচ ছিল ভারতের। সেই ম্যাচ জিতলেই পরের রাউন্ডে চলে যেত ভারত। তবে তার আগেই প্যালেস্তাইন বনাম ফিলিপিন্স ম্যাচের ফলাফলের ওপর নির্ভর করে এএফসি এশিয়ান কাপের যোগ্যতা অর্জন করে ফেলল ভারতীয় ফুটবল দল। ফলে হংকংয়ের বিপক্ষে তাঁদের ম্যাচ ছিল নেহাতই নিয়মরক্ষার। টানা দুবার এএফসি এশিয়ান কাপের সেমিফাইনালে উঠল ভারতীয় ফুটবল দল।

অতীতে সুনীল ছেত্রী, সুব্রত পালরা প্রায় এক দশক আগে এশিয়ান কাপে উঠেছিল। শেষবারও সুনীল খেলেছিলেন এশিয়ান কাপে। তবে কোনওবারই ভালো কিছু করে দেখাতে পারেনি ভারত। 2023 এশিয়ান কাপে দলকে তুলে তাই ভালো কিছু করে দেখানোর স্বপ্ন দেখছেন স্টিম্যাচের দলের প্রধান অস্ত্র সুনীল। গত দুই ম্যাচেই গোল করেছেন তিনি। আগামী বছরের এএফসি কাপই হয়ত তাঁর শেষ প্রতিযোগিতা হতে পারে। তাই সেই প্রতিযোগিতায় নিজেকে উজার করে দিতে মুখিয়ে সুনীল।