Date : 2022-08-11

শিল্পের জন্য জমির চরিত্র পরিবর্তন ! এবার এক ক্লিকেই মুসকিল আসান। অনলাইন পরিষেবা চালু বাঁকুড়ায়।

সঞ্জু সুর, সাংবাদিক ঃ নতুন শিল্প স্থাপনের ক্ষেত্রে জমির চরিত্র পরিবর্তন এবার আরো সহজ হলো। মাত্র এক ক্লিকেই আবেদন জমা ও এক ক্লিকেই অনুমতিপত্র ডাউনলোড করতে পারবেন আবেদনকারীরা। বুধবার এই অনলাইন পরিষেবা চালু করলেন বাঁকুড়ার জেলাশাসক কে রাধিকা আইয়ার। বাঁকুড়ার বড়জোরা গঙ্গাজলঘাঁটি প্ল্যানিং অথরিটি এলাকার প্রায় ৮২ টি মৌজার জন্য এই পরিষেবা চালু করলেন তিনি। এর মাধ্যমে শুধু শিল্প স্থাপনে আগ্রহী ব্যক্তিরাই যে উপকৃত হবেন তা নয়, উপকৃত হবেন ব্যক্তিগত জমির মালিকরাও।

২০১১/১২ সাল থেকে বড়জোরা গঙ্গাজলঘাঁটি পরিকল্পনা কর্তৃপক্ষ কাজ করে আসছে। এই এলাকায় রয়েছে রাজ্যের অন্যতম একটা শিল্প পার্ক। বড়জোরার ৪৪ টি মৌজা ও গঙ্গাজলঘাঁটির ৩৮ টি মৌজা এলাকা নিয়ে গঠিত এই প্ল্যানিং অথরিটি এই এলাকায় জমির চরিত্র পরিবর্তন সংক্রান্ত অনুমতি দিয়ে থাকে। এতদিন অফলাইন মোডেই এই কাজ হতো। বুধবার বিশিষ্টজনদের উপস্থিতিতে জেলাশাসক কে রাধিকা আইয়ার যে পরিষেবার সূচনা করলেন তাতে নিঃসন্দেহে উপকৃত হবেন শিল্প স্থাপনে আগ্রহী ব্যক্তিরা। নতুন যে পোর্টালের মাধ্যমে আবেদন করতে হবে তা হলো (http://wbuddevauth.gov.in/)

নতুন শিল্প স্থাপনের সময় জমির চরিত্র পরিবর্তন এক দীর্ঘমেয়াদি প্রসেস। এক তো আবেদনকারী কে নিজে অথবা প্রতিনিধি মারফৎ উপস্থিত হতে হয়। বিস্তর কাগজপত্র জমা দিতে হয়। নিতে হয় বিভিন্ন দফতরের নো অবজেকশন সার্টিফিকেট (NOC)। এবার থেকে আর এত ঝামেলার মধ্যে যেতে হবে না আবেদনকারীদের। সরকারি পোর্টালে অনলাইনে আবেদন করলেই হবে। নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে আবেদনকারী তাঁর নিজস্ব লগ‌ইন থেকে প্রয়োজনীয় পারমিশন বা অনুমতিপত্র ডাউনলোড (download) করে নিতে পারবেন শুধু মাত্র মাউসের একটা ক্লিকেই। বাঁকুড়া জেলার বড়জোরা ও গঙ্গাজলঘাঁটি এলাকার ৮২ টি মৌজার আবেদনকারীরা এই অনলাইন পরিষেবার সুবিধা পাবেন।