Date : 2022-06-30

রাজ্য পুলিশে ওয়েলফেয়ার ফোরাম। নবান্নে ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর।

সঞ্জু সুর, সাংবাদিক ঃ রাজ্য পুলিস আধিকারিকদের কল্যাণে ওয়েলফেয়ার ফোরাম তৈরির কথা ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বৃহস্পতিবার নবান্নে সাংবাদিক সম্মেলন করে এই ঘোষণা করেন তিনি। ডব্লুবিপিএস অফিসারদের এই ফোরামের নামকরণ‌ও করে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী। নতুন গঠিত ফোরামের নাম হল “দি ওয়েস্ট বেঙ্গল স্টেট পুলিশ সার্ভিস অফিসার্স ফোরাম।”

মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণা, এই ফোরামে পশ্চিমবঙ্গ ক্যাডারের ৮৫ জন আইপিএস অফিসারও থাকবেন।বৃহস্পতিবার নবান্নে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মুখ্যসচিব এইচ কে দ্বিবেদী, স্বরাষ্ট্র সচিব বি পি গোপালিকা, রাজ্য পুলিশের ডিজি মনোজ মালব্য এবং অন্যান্য উচ্চপদস্থ আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠক করেন। সেখানে তিনি রাজ্য পুলিশে নতুন করে নিয়োগ, পদোন্নতি, ভাতাবৃদ্ধিতে একাধিক সুবিধার কথা ঘোষণা করেন। মুখ্যমন্ত্রী বলেন বাংলার পুলিশকে কর্মদক্ষতার স্বীকৃতি দেওয়া হলো। আরও দেওয়া হবে। পুলিশের যে ফোরাম গঠন করা হলো, তা দেখে অন্য রাজ্যও অনুপ্রাণিত হবে। মুখ্যমন্ত্রী জানান, এদিনই ৬ জন ডিএসপি-কে পদোন্নতি দিয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার পদে উন্নীত করা হয়েছে এবং ৬ জন প্রোমোটি আইপিএসকে অ্যাডিশনাল এসপি থেকে এসপি করা হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী ঘোষণা করেন, যেহেতু প্রশাসনিক কাজের পরিসরের বহর বেড়েছে, পুলিশ জেলা বাড়ানো হয়েছে সে কারণে আরও ২০০ ডব্লিউবিসিএস এবং ২০০ ডব্লিউবিপিএস নিয়োগ করা হবে। মুখ্যমন্ত্রী এদিন বলেন, “ইংরেজ আমল থেকে চলে আসা একটা পাথরকে আমরা ধাক্কা দিয়ে সরিয়ে দিলাম।” পুলিশের পদোন্নতি যাতে মসৃণ ভাবে হয় সে ব্যাপারেও এদিন জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, “চাকরিতে যোগ দেওয়ার আট, ষোল এবং পঁচিশ বছরের মাথায় পদোন্নতি ও বেতনবৃদ্ধি হবে।” এ ব্যাপারে সরকারি প্রক্রিয়া করতে যাতে ঢিলেমি না হয় তা নিয়ে এদিন সতর্ক করে দিয়েছেন মমতা। তাঁর নির্দেশ, এর জন্য ডব্লিউবিসিএস ও ডব্লিউবিপিএসদের জন্য আলাদা আলাদা সেল থাকবে। যাতে কাজে জটিলতা না হয়। মুখ্যমন্ত্রী আরো জানান, “বাংলায় পুলিশ সার্ভিসের অফিসারদের কর্মদক্ষতার স্বীকৃতি দিতে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। আমি আশা করবো আপনাদের এই ফোরাম এর মাধ্যমে আপনারা আপনাদের সুবিধা অসুবিধার কথা গুলো তুলে ধরতে পারবেন।” পুলিশ আধিকারিকদের আশ্বস্ত করে তিনি বলেন, “আপনাদের যে কোনো প্রয়োজনে আমাকে বিনা দ্বিধায় জানাতে পারেন।” তবে সম্ভবতঃ আনীস কান্ডের কথা মাথায় রেখেই মুখ্যমন্ত্রী পুলিশ আধিকারিকদের উদ্দেশ্যে বলেন, “ভিশন নিয়ে কাজ করতে হবে। ঝটপট, চটপট কাজ করতে হবে। তবে তার মানে এই নয় যে চটপট কাউকে তুলে নিয়ে এলাম আর মেরে দিলাম।” মুখ্যমন্ত্রীর উপদেশ, “যা করবে পরিবারকে কনফিডেন্সে নিয়ে করবে।”

এদিন পুলিশের জন্য বেশকিছু সুবিধার কথাও ঘোষণা করেন তিনি। এসডিপিও-দের জন্য ২০০০ টাকা করে ও অ্যাডিশনাল এসপি-দের জন্য ২৫০০ টাকা করে অতিরিক্ত মাসিক ভাতার পাশাপাশি পোশাক কেনার জন্য ২০০ টাকা থেকে একলাফে বাড়িয়ে বছরে ১৫ হাজার টাকা করা হল বলেও জানান মুখ্যমন্ত্রী।

মাস কয়েক আগে টাউন হলে ডব্লিউবিসিএস অফিসারদের সভায় মুখ্যমন্ত্রী বিশেষ ভাতা বৃদ্ধির কথা ঘোষণা করেছিলেন। আইএএস অফিসারদের বেতনের সঙ্গে ডব্লিউবিসিএস অফিসারদের বেতনে সামঞ্জস্য আনার লক্ষ্যেই সেই ঘোষণা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী।পুলিশের ক্ষেত্রেও এদিন তেমনটাই করা হল।