Date : 2022-12-09

আপনি পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ অধ্যক্ষ। বিধানসভায় বললেন বিজেপি বিধায়ক।

সঞ্জু সুর, সাংবাদিক : পশ্চিমবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় আইন (সংশোধনী) বিল, ২০২২ বিধানসভায় পাশ হয়েছে সোমবার। সংখ্যাধিক্যের জোড়ে সেই বিল পাশ করিয়েছে সরকার পক্ষ। কিন্তু ভোটাভুটিতে সংখ্যার বিভ্রান্তির রেশ মঙ্গলবারেও বজায় র‌ইলো বিধানসভার অধিবেশন কক্ষে। এদিন ভোট গণনায় বিভ্রান্তি নিয়ে দৃষ্টি আকর্ষণী প্রস্তাব আনেন বিজেপি বিধায়ক অশোক লাহিড়ি। সেই সময়েই তিনি অধ্যক্ষের উদ্দেশ্যে বলেন, “আপনি পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ অধ্যক্ষ। আপনি আমাদের সবার নেতা।”

সোমবার পশ্চিমবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় আইন (সংশোধনী) বিল,২০২২ আলোচনার জন্য বিধানসভায় পেশ করা হয়। দুই ঘন্টা আলোচনার পর বিজেপির বিধায়কদের দাবিতে ভোটাভুটি হয়। ভোটাভুটির পর অধ্যক্ষ বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় জানান এই বিলের পক্ষে ভোট পড়েছে ১৮২ টি, বিপক্ষে ভোট পড়েছে ৪০ টি। অধিবেশন কক্ষে বিজেপি বিধায়করা কিছুটা অবাক হয়ে একে অপরের দিকে তাকান। তাহলে কি তাঁদের কেউ বিলের পক্ষে ভোট দিয়েছে। পরে অবশ্য অধিবেশন কক্ষের বাইরে তাঁরা দাবি করেন যারা (বিজেপি বিধায়করা) ভিতরে ছিলেন তারা দলের নির্দেশ অনুযায়ী বিলের বিপক্ষেই ভোট দিয়েছেন। তাহলে তাদের সংখ্যা কম হলো কি করে ! রাতের দিকে জানা যায়, ভোট গণনায় কিছু ভুল হয়েছে। জানা যায়, পশ্চিমবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় আইন (সংশোধনী) বিল ১৬৭ টি ভোট পেয়েছে, বিপক্ষে ভোট পড়েছে ৫৫ টি।
মঙ্গলবার বিধানসভার অধিবেশন শুরু হলে এই বিষয়ে বিধানসভার অধ্যক্ষ জানান, এক কর্মির অনিচ্ছাকৃত ভুলের জন্য‌ই এটা হয়েছে। তিনি বিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন। তিনি এটাও বলেন যে এই ভুল দূর্ভাগ্যজনক। সেই সময় বালুরঘাটের বিজেপি বিধায়ক অশোক লাহিড়ি অধ্যক্ষের কাছে দৃষ্টি আকর্ষণী প্রস্তাব আনার দাবি জানান। অধ্যক্ষ তাঁকে অনুমতি দিলে তিনি এই মন্তব্য করেন। কিছুটা কটাক্ষ করে অশোক লাহিড়ি বলেন, আমাদের অনেকে বলছে এটা ট্রেজারি বেঞ্চের ষড়যন্ত্র। কিন্তু আমি বিশ্বাস করি না আমার যেসব বন্ধুরা ট্রেজারি বেঞ্চে বসে রয়েছেন, আপনি রয়েছেন, আপনারা এই ধরনের ষড়যন্ত্র করতে পারেন। আপনি বললেন এটা দূর্ভাগ্যজনক ভুল। যদি এই ভুল বিধানসভার কোন কর্মী করে থাকেন তবে আমি বলতে বাধ্য হচ্ছি বিধানসভার ওই কর্মী বা আধিকারিক অযোগ্য। এটা লজ্জার।
সেই সময় বিধানসভার অধ্যক্ষ বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “আমি আবার বলছি একজন বয়স্ক কর্মী তিনি নিজেই গতকাল রাত্রে আমার কাছে ভুল স্বীকার করেন। এক নম্বর ব্লকের ভোট গননা হয়নি। এই দুর্ভাগ্যজনক ভুলের বিষয় আমি ইতিমধ্যেই বিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ দিয়েছি।”