Date : 2022-12-02

করোনার চতুর্থ ঢেউ কি আসন্ন? বাঁচার কি কোনো উপায় নেই? করোনা সংক্রমণকে হারাতে সচেতন হতে হবে।

শাহিনা ইয়াসমিন, সাংবাদিক: করোনা সংক্রমণ গ্রাফ ঊর্ধ্বমুখী। চিকিৎসকদের পরামর্শ এই সময় সকলকে সাবধানতার সঙ্গে থাকতে হবে। মাস্ক, স্যানিটাইজার পুনরায় ব্যাবহার করতে বলছেন। সচেতনতা উধাও মানুষের মধ্যে। মাস্ক ছাড়াই রাস্তায় বেরিয়ে পড়ছেন। সেই ছবি দেখা যাচ্ছে সব জায়গায়। বেশি দেরি হয়ে যাওয়ার আগেই নিজের দফতরের যাবতীয় পরিকাঠামো নিয়ে পথে নামলেন দক্ষিণ দমদম পৌরসভার স্বাস্থ্য বিভাগের চেয়ারম্যান ইন কাউন্সিল সঞ্জয় দাস। নাগেরবাজার মোড়ে ব্যস্ত অফিসটাইমে পথচলতি মানুষের রেন্ডম RTPCR পরীক্ষা করলেন। সঙ্গে শুধু আধার কার্ড থাকলেই হবে। পাশাপাশি, যারা এখনও বুস্টার বা প্রিকশন ডোজ নেননি, তাদের দেওয়া হল কুপন।

পুরসভা আরবান প্রাইমারি হেল্থ সেন্টারে সেই কুপন দেখিয়ে বুস্টার ডোজে অগ্রাধিকার পাবেন সংশ্লিস্ট ব্যক্তি। মাস্ক পরার অভ্যাস ফিরিয়ে আনতে মোড়ে মোড়ে সচেতনতা প্রচার ও মাস্ক বিলি করলেন দক্ষিণ দমদম পৌরসভার স্বাস্থ্য বিভাগের চেয়ারম্যান ইন কাউন্সিল সঞ্জয় দাস। তবে মানুষকে সচেতন হতে বললেন তিনি। মানুষ সচেতন হলেই করোনা সংক্রমণকে হারানো যাবে।