Date : 2022-11-27

চার মাসের কারাদণ্ডের নির্দেশ বিজয় মালিয়াকে

পৌষালী সেনগুপ্ত, নিউজ ডেস্ক : পলাতক ব্যবসায়ী বিজয় মাল্যের সাজা ঘোষণা হল সুপ্রিম কোর্টে। সোমবার আদালত থেকে তথ্য গোপন এবং আদালত অবমাননার দায়ে মাল্যকে দু’হাজার টাকা জরিমানা এবং চার মাসের কারাদণ্ডের নির্দেশ দিল দেশের শীর্ষ আদালত।দেশের শীর্ষ আদালত এ-ও বলেছে, জরিমানা সময়মতো জমা না হলে মাল্যকে আরও দু’মাসের কারাদণ্ড ভোগ করতে হবে।কিন্তু কী অভিযোগ তাঁর বিরুদ্ধে? সুপ্রিম কোর্ট আরও জানায়, নির্দেশ অগ্রাহ্য করে সন্তানদের প্রায় ৩১৭ কোটি ৬৩ লক্ষ টাকা পাঠিয়েছেন বিজয় মাল্য। এ দিকে তাঁকে ৬,২০০ কোটির টাকারও বেশি ব্যাঙ্ক ঋণ পরিশোধ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। বার বার নির্দেশ অমান্য করেও কোনও অনুশোচনা নেই ব্যবসায়ীর। তাই এই সাজা ঘোষণা করা হল।গত ফেব্রুয়ারি মাসে সলিসিটর জেনারেল তুষার মেটা সুপ্রিম কোর্টে জানান, ঋণখেলাপি মামলায় অভিযুক্ত এবং পলাতক বিজয় মাল্য, নীরব মোদী এবং মেহুল চোকসির কাছ থেকে মোট ১৮,০০০ কোটি টাকা উদ্ধার করা হয়েছে। ৬৬ বছর বয়সি মাল্যের বিরুদ্ধে ৯ হাজার কোটির টাকার বেশি ঋণখেলাপির অভিযোগ রয়েছে। বর্তমানে ব্রিটেনে রয়েছেন তিনি।সুপ্রিম কোর্ট জানিয়েছে, ওই বিরাট অঙ্কের টাকা লেনদেন হয়েছে সম্পূর্ণ বেআইনিভাবে। যাদের কাছে ওই ৪০ মিলিয়ন ডলার পাঠানো হয়েছে, ওই টাকা তাদের ৮ শতাংশ সুদ সহ রিকভারি অফিসারের কাছে ফেরত দিতে হবে চার সপ্তাহের মধ্যে। আর তা যদি না করা হয়, তাহলে বিজয় মালিয়ার সম্পত্তি অ্যাটাচ করা যেতে পারে। তবে তার আগে ওই টাকা আদায় করার জন্য রিকভারি অফিসারকে সবরকম সহযোগিতা করতে হবে সরকার এবং সংশ্লিষ্ট সমস্ত এজেন্সিকে।তাঁর বিমান সংস্থা সূত্রে ঋণ নেওয়া ৯ হাজার কোটি টাকা পরিশোধ না করার মামলায় ফেঁসে আছেন বিজয় মালিয়া। ২০১৬ সালের মার্চ মাস থেকেই তিনি রয়েছেন ইংল্যান্ডে। ফলে তাঁর অনুপস্থিতিতেই এদিন মামলায় রায় দিয়েছে সুপ্রিম কোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ।