Date : 2022-08-10

দমকলে বেআইনি কর্মী নিয়োগ সংক্রান্ত মামলায় ফের ১৫ দিনের অন্তর্বর্তীকালীন স্থগিতাদেশ দিল ডিভিশন বেঞ্চ

ষষ্ঠী চট্টোপাধ্যায়, সাংবাদিক : মামলার বয়ান অনুযায়ী ২০১৮-য় নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়। ফল প্রকাশিত হয় ২০১৯ সালে। সংরক্ষণ সংক্রান্ত শংসাপত্রকে মান্যতা না দিয়েই মেধাতালিকা প্রকাশের অভিযোগ। স্যাটে মামলা খারিজের পরে হাইকোর্টের দ্বারস্থ চাকরিপ্রার্থীদের একাংশ। চাকরিপ্রার্থীদের একাংশের মামলাতেই নিয়োগে অন্তর্বর্তী স্থগিতাদেশ দিয়েছিল কলকাতা হাইকোর্ট। সোমবার ফের মেয়াদ বৃদ্ধি করলো ডিভিশন বেঞ্চ।

এদিন শুনানিতে ফায়ার ব্রিগেড নিয়োগ সংক্রান্ত মামলায় অন্তর্বর্তীকালীন স্থগিতাদেশের সময়সীমা ১৫ দিন বৃদ্ধি করা হলো ।পাবলিক সার্ভিস কমিশনের আইনজীবী এক সপ্তাহ সময়ের আবেদন জানান এদিন কলকাতা হাইকোর্টে। তার আবেদন মঞ্জুর করলেন বিচারপতি হরিশ টেন্ডনের ডিভিশন বেঞ্চ। আগামী সোমবার মামলার পরবর্তী শুনানি। এই মামলায় পাবলিক সার্ভিস কমিশনের আইনজীবী প্রদীপ রায়কে সরিয়ে দেয় কমিশন। নতুন আইনজীবী নিয়োগ হন আভ্রতোষ মজুমদার।
এতেই ক্ষুব্ধ আইনজীবী প্রদীপ রায় সংবাদ মাধ্যমের দিকে অভিযোগের আঙ্গুল তুলে বিচারপতি হরিশ ট্যান্ডন এর কাছে অভিযোগ জানান। দাবি করেন সংবাদ মাধ্যমের ভুল খবরের জন্য তাকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। তিনি এই মামলায় আদালত বান্ধব হতে চান। তার এই আবেদনও খারিজ করেন বিচারপতি ট্যান্ডনের ডিভিশন বেঞ্চ।

মামলাকারিদের অভিযোগ ছিল স্কুল সার্ভিস কমিশন, কলেজ সার্ভিস কমিশন, পাবলিক সার্ভিস কমিশন, মাদ্রাসা সার্ভিস কমিশন, কো-অপারেটিভ সার্ভিস কমিশনের পরে এবার দমকল বিভাগের ফায়ার অপারেটর পদে নিয়োগেও নিয়ম না মানার অভিযোগ। যার জেরে, দমকলে নিয়োগ প্রক্রিয়ায় আগামী ১৫দিনের জন্য অন্তর্বর্তী স্থগিতাদেশ দিল কলকাতা হাইকোর্ট। ফলে আপতত থমকে রইল দমকলের প্রায় দেড় হাজার শূন্যপদে নিয়োগের প্রক্রিয়া মামলাকারীদের অভিযোগ, সংরক্ষণ, খেলোয়াড় কোটায় বিশেষ সংরক্ষণ এবং প্রশিক্ষণ সংক্রান্ত বিশেষ শংসাপত্রকে মান্যতা না দিয়েই প্রকাশিত হয় মেধাতালিকা। এই অভিযোগের প্রেক্ষিতে কর্মপ্রার্থীরা স্যাট’র দ্বারস্থ হন। স্যাট সেই মামলা খারিজ করে দেয়। স্যাটের রায়কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হন চাকুরী প্রার্থীরা। সোমবার সেই মামলার শুনানিতে বিচারপতি হরিশ টন্ডনের ডিভিশন বেঞ্চ। আগামী ১৫দিনের দমকলের ফায়ার অপারেটর পদে নিয়োগ প্রক্রিয়া অন্তর্বর্তী স্থগিতাদেশ মেয়াদ বৃদ্ধি করে।

আগামী সোমবার ১৮ই জুলাই মামলার পরবর্তী শুনানি।