Date : 2022-08-11

পার্থ-অর্পিতার সম্পত্তির ভুয়ো ঠিকানা, চলল ইডির তল্লাশি

সঞ্জনা লাহিড়ী, সাংবাদিক-

এসএসসি আর্থিক দুর্নীতিতে ফের শহর জুড়ে চলল তল্লাশি অভিযান। কসবা রাজডাঙার ইচ্ছে এন্টারটেনমেন্টের অফিসের ভুয়ো ঠিকানার হদিশ। বিভিন্ন নথি ঘেঁটে দেখলেন ইডি আধিকারিকরা। সোমবার ইডির বিশেষ আদালতের নির্দেশে প্রাক্তন শিক্ষা মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় ও তাঁর “ঘনিষ্ঠ” অর্পিতা মুখোপাধ্যায়কে নিজেদের হেফাজতে পেয়েছে ইডি। মঙ্গলবার তাঁদের জেরা করা শুরু করেছেন এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরের আধিকারিকরা। তাঁদের জেরা করে পাওয়া বয়নের পরিপ্রেক্ষিতে বুধবার সকালে সল্টলেকের সিজিও কমপ্লেক্স থেকে বেরোয় ইডির ৫ টি দল। একটি দল যায় বেলঘরিয়ায় অর্পিতার ফ্ল্যাটে, একটি দল যায় ঢাকুরিয়ার একটি শাড়ির বিপনীতে, একটি দল পৌছয় বাগুইআটির ফ্ল্যাটে, একটি দল তল্লাশি অভিযান চালায় পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের বালিগঞ্জ প্লেসের বাড়িতে।

যে বাড়ির মালিক পার্থ চট্টোপাধ্যায় হলেও, বারাসাতের একটি শাড়ি বিপনীর টাকায় কেনা হয়েছিল ওই বাড়ি। আর একটি দল পৌছয় কসবা রাজডাঙার ইচ্ছে এন্টারটেইনমেন্টের অফিসে। সকাল ১১টা ২০ নাগাদ ৪ সদস্যের ইডি আধিকারিকের দলটি পৌছয়। কেন্দ্রীয় বাহিনীর নিরাপত্তায় পৌছয় ইডি আধিকারিকরা। অন্যান্য দিনের মতোই এদিনও সকাল থেকে ওই প্রোডাকশন হাউসে শুটিং চলছিল বলে জানা গেছে। ইডি আধিকারিকরা অফিসের নিরাপত্তা রক্ষীদের সঙ্গে কথা বলেন। এরপরই তাঁরা বিভিন্ন ঘরে তল্লাশি চালায়। অফিস ঘরে গিয়ে তাঁরা দীর্ঘক্ষণ বিভিন্ন নথি খতিয়ে দেখেন। এরমধ্যেই উঠে আসে চাঞ্চল্যকর তথ্য। দীর্ঘদিন ধরে চলা ইচ্ছে এন্টারটেইনমেন্ট প্রাইভেট লিমিটেড যে ঠিকানায় রয়েছে তা সম্পূর্ণ একটি ভুয়ো ঠিকানা বলে দাবি করেন ওই এলাকারই বাসিন্দা রঞ্জিত কর। দীর্ঘদিন ধরে ৯৫ রাজডাঙা মেন রোডে নিজের ব্যবসা চালিয়ে আসছেন তিনি। সংবাদমাধ্যমে হঠাৎই ইচ্ছে এন্টারটেইনমেন্টের ঠিকানা ৯৫ রাজডাঙা মেন রোড দেখে হতবাক হয়ে যান তিনি। ইডি আধিকারিকদের বিষয়টি জানালে তা খতিয়ে দেখা হবে বলে জানান ইডি আধিকারিকরা বলে সূত্রের খবর। কসবা থানায় বিষয়টি জানিয়ে অভিযোগ দায়ের করা হয়। দীর্ঘক্ষণ বেশ কয়েকটি নথিপত্র নিয়ে ইচ্ছে এন্টারটেনমেন্টের অফিস ছাড়েন ইডি আধিকারিকরা। এই সমস্ত বাজেয়াপ্ত নথি খতিয়ে দেখা হবে বলে ইডি সূত্রে খবর।। এই সমস্ত বাজেয়াপ্ত নথি খতিয়ে দেখা হবে বলে ইডি সূত্রে খবর।