Date : 2022-12-02

চিড়িয়াখানায় প্রথমবার জন্ম নিল ইগুয়ানা। সর্প দিবসে ঘোষণা আলিপুর চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষের।

নাজিয়া রহমান, সাংবাদিক : যাদের নামের সঙ্গে জড়িয়ে থাকে আতঙ্ক। ১৬ই জুলাই তাদের দিন। আন্তর্জাতিক সর্প দিবস। সারা পৃথিবীর প্রায় ৩৫০০ প্রজাতির সাপের মধ্যে মাত্র ৬০০টি প্রজাতিই কেবল বিষধর। সাপ সম্পর্কে অজ্ঞতা ক্রমশ এই প্রাণীটিকে অবলিপ্তর পথে ঠেলে দিচ্ছে। সাপ বাঁচাতে, এর সম্পর্কে মানুষের মনের ভীতি দূর করতে, সচেতনতা গড়ে তুলতে রাজ্য জুড়ে কাজ করে চলেছে বহু সংগঠন। চিড়িয়াখানা গেলে বিভিন্ন প্রজাতির সাপ দর্শকরা দেখতে পান। এই সর্প দিবসে তিন প্রজাতির সরীসৃপের বাচ্চা প্রকাশ্যে আনল আলিপুর চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ। কয়েকদিন আগে ইগুয়ানা, শাখামুটি ও গোসাপ এই তিন প্রজাতির সরীসৃপের বাচ্চা জন্ম নেয়। 

শনিবার সর্প দিবসে এই তিন প্রজাতির সরীসৃপের বাচ্চা জন্মের কথা ঘোষণা করল ও প্রকাশ্যে আনল চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ । কয়েক বছর আগে হায়দ্রাবাদ চিড়িয়াখানা থেকে আনা হয় ৫টি ইগুয়ানা। তারমধ্যে ২টি ইগুয়ানা ১০ এপ্রিল ২৯টি ডিম দেয়। জুন মাসের ১৯-২০ তারিখ সেই ডিম ফুটে ২৭টি বাচ্চা জন্ম নিয়েছে।

আলিপুর চিড়িয়াখানায় এই প্রথমবার ইগুয়ানার বাচ্চা জন্ম নিল। মূলত দক্ষিণ আমেরিকার গ্রীষ্মমণ্ডলীয় রেইন ফরেস্টে ইগুয়ানা জন্ম। একটি প্রাপ্তবয়স্ক ইগুয়ানার ওজন 13.5 কেজি পর্যন্ত হয় এবং দৈর্ঘ্যে দুই মিটার হয়। ইগুয়ানাগুলি ছোট ডাইনোসরের মতো দেখতে হয় পাতা, ফুল এবং ফল এদের খাদ্য। তাদের নখরগুলো আরোহণকারী বিড়ালের মতো, যা তাদের ভালোভাবে গাছে উঠতে সাহায্য করে।

ইগুয়ানা ছাড়াও ২১টি গোসাপ ও ১০টি শাখামুটির বাচ্চাও প্রকাশ্যে আনেন চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ। গোসাপ। এটি সাপ নয়। এই প্রাণী গিরগিটি প্রজাতির । লম্বায় সর্বাধিক ১০ ফুট পর্যন্ত হয়ে থাকলেও, বেশি দেখা যায় ২-৪ ফুট এবং প্রস্থে ১১ ইঞ্চির মতো আকার ধারীদের। স্থলে জলে বসবাসকারী এদের সাতার কাটতে ও গাছে চড়তেও দেখা যায়। গাঢ় বাদামি বা কালচে, তাতে হলুদ রঙের রিং বিদ্যমান। পা ও নখ লম্বাটে। লেজ চ্যাপ্টা ও শিরযুক্ত। দেশের সর্বত্র গৃহস্থের বাড়ির আঙিনায়, কৃষি ক্ষেতে, বনে–জঙ্গল ও জলাভূমিতে দেখা যায়।

শাখামুটি মুলত শ্রীলঙ্কা, ভারত, বাংলাদেশ, মিয়ানমার, মালয়েশিয়া, চীন, কম্বোডিয়া, ভিয়েতনাম, থাইল্যান্ড ও নেপালের একটি স্থানীয় সাপ। এটি বিষধর প্রজাতির সাপ। স্বাভাবিক দৈর্ঘ্য ০.৯ মিটার বা ৩ ফুট যদিও এর দ্বিগুণ অর্থাৎ ১.৭৫ মিটার বা ৫ ফুট ৯ ইঞ্চি দৈর্ঘ্যের সাপও পাওয়া গিয়েছে। নবজাতকের দৈর্ঘ্যে ২৫-২৭ সে.মি. পর্যন্ত হয়।

তিনটি প্রজাতির বাচ্চাদেরই কিপারদের তত্ত্বাবধানে সুরক্ষিত জায়গায় রাখা হয়েছে। তাই এখনই দর্শকরা চিড়িয়াখানা এলে দেখতে পাবেন না এই তিন প্রজাতির সরীসৃপদের।