Date : 2022-12-02

শহরের নজরদারি বাড়াতে উন্নতমানের ৬০ টি সিসিটিভি

সঞ্জনা লাহিড়ী, সাংবাদিক: কলকাতা ট্রাফিক পুলিশের তরফ থেকে শহরের গুরুত্বপূর্ণ মোড় গুলিতে বসানো হচ্ছে উন্নত প্রযুক্তির ৬০ টি সিসিটিভি ক্যামেরা। ভবানীপুর জোড়া খুনের ঘটনা থেকে শিক্ষা নিয়ে এবার নয়া সিদ্ধান্ত কলকাতা পুলিশের। কলকাতা পুলিশের তরফ থেকে শহরের গুরুত্বপূর্ণ মোড় গুলিতে বসানো হচ্ছে অত্যাধুনিক প্রযুক্তি সম্পন্ন সিসিটিভি ক্যামেরা। প্রাথমিক ভাবে মোট ৬০ টি উন্নতমানের সিসিটিভি বসানো হবে। পরে এই সংখ্যাটা আরও বাড়বে। শহরকে নিরাপদ এবং সুরক্ষিত রাখতেই এই পদক্ষেপ। এই সিসিটিভির মাধ্যমে পুঙ্খানুপুঙ্খ ভাবে নজরদারি চালানো সম্ভব হবে বলে মনে করছেন ট্রাফিক আধিকারিকরা। অনেক সময় রাজনৈতিক বিক্ষোভকে কেন্দ্র করে ভাঙচুর বা অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটে। এই সমস্ত কর্মকাণ্ডের উপরে নজরদারি চালানোর জন্যই কলকাতার গুরত্বপূর্ন রাস্তাগুলোতে সিসিটিভি বসানো হচ্ছে।

উন্নত প্রযুক্তি ব্যবহার করে সিসিটিভি থেকে লালবাজারে সরাসরি সেই জায়গার ভিডিও ফাইবারের মাধ্যমে পৌঁছে যাবে। যাতে সেই সময়ের স্থানীয় ট্রাফিক পরিস্থিতির সমস্ত গতিবিধি সরাসরি লালবাজারের কন্ট্রোল রুমে পৌছে যায়। অনেক সময় অপরাধ ঘটিয়ে দুষ্কৃতীরা চম্পট দেয়। রাস্তায় সিসিটিভি থাকা সত্ত্বেও অপরাধীদের পাকড়াও করা সম্ভব হয় না। যেমনটা ভবানীপুর জোড়া খুনের ঘটনায় দেখা গেছে। এক মাস পেরিয়ে গেলেও এখনও অধরা মূল অভিযুক্ত। রাস্তার সিসিটিভি গুলোতে ছবি জুম করলে ছবির পিক্সেল ফেটে যায়, ছবি বোঝা যায় না। ফলে অভিযুক্তকে চিহ্নিত করা দুঃসাধ্য হয়ে পড়ে।

নতুন এই অত্যাধুনিক প্রযুক্তি দিয়ে সিসিটিভির এচডি কোয়ালিটি ছবি পাওয়া যাবে বলে লালবাজার সূত্রে খবর। শহরের অনেক জায়গাতেই সিসিটিভি বিকল হয়ে পড়ে রয়েছে। তার বদলে উন্নত প্রযুক্তির নতুন এই সিসিটিভি ব্যবহার করে শহরের আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতির উপরে আরও বেশি এবং সঠিক ভাবে নজরদারি রাখা সম্ভব হবে বলে মনে করছেন লালবাজারের উচ্চপদস্থ আধিকারিকরা।