Date : 2022-12-02

গড় রক্ষায় পার্থের পণ

রুমঝুম সামন্ত, নিউজ ডেস্ক; এক সময় মুকুল রায়ের অনুগামী ছিলেন তিনি। তবে তিনি বলতেন তিনি নিজেই নিজের অনুগামি। তাঁর নেত্রী স্রেফ একজনই, তিনি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মুকুল রায়ের সঙ্গে তৃণমূলের যখন দুরত্ব তৈরি হচ্ছিল তখন থেকেই আসতে আসতে উত্তর 24 পরগনা এবং নদিয়ার বেশ কিছু অংশের রাশ তিনি নিজের হাতে নিতে থাকেন। দূরত্ব বাড়ান কাঁচরাপাড়ার রায় পরিবারের সঙ্গেও। তৃণমূল হাইকম্যান্ডেরও নজরে পড়ে সেই সময় থেকে ভরসা জিততে থাকেন কালীঘাটের। অনেকে বলে, মুকুল রায়ের বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর থেকেই অভিষেক ব্ন্দ্যোপাধ্যায়ের নজরে পড়েন নৈহাটির পার্থ ভৌমিক। 2019 লোকসভা নির্বাচনে অর্জুন সিং-এর দল পরিবর্তনের পর ব্যারাকপুর জেলা তৃণমূলের সাংগঠনিক দায়িত্ব পান তিনি।

রাজনৈতিক জীবন
নৈহাটির তৃণমূল বিধায়ক পার্থ ভৌমিক
নৈহাটি থেকে তিনবার তৃণমূলের টিকিটে বিধায়ক
রাজ্য বিধানসভার পরিষদীয় সচিব এবং বিধানসভায় শাসক দলের উপমুখ্য সচেতক
উত্তর 24 পরগনায় তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সভাপতি
বর্তমানে তিনি শাসক দলের সদ্য গঠিত দমদম-ব্যারাকপুর সাংগঠনিক জেলা সভাপতি

উনিশের লোকসভা নির্বাচনেরও ঘাসফুল শিবির থেকে দায়িত্ব দেওয়া হয় পার্থ ভৌমিককে। দীনেশ ত্রিবেদীকে জেতাতে না পারলেও তার এলাকা সবুজই ছিল।
অনেকে বলে, 2019 লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূল কংগ্রেস ব্যারাকপুর কেন্দ্রে
হেরে যাওয়ায় পার্থ ভৌমিক ক্রমশ কোণঠাসা হয়ে পড়েন দলে
তারপর থেকেই একের পর এক পুরসভাও হাতছাড়া হতে থাকে
যদিও 6 মাস পর সেই পুরসভাগুলি তৃণমূল নিজের দখলে নেয়
তারপর থেকেই ব্যারাকপুর শিল্পাঞ্চলে পার্থ ভৌমিকের পুনরুত্থান ঘটে
এক সময় ব্যারাকপুর শিল্পাঞ্চল একাই সামলাতেন
বিধানসভার শিল্পবিষয়ক কমিটির চেয়ারম্যান এবং
পাবলিক অ্যাকাউন্টস কমিটির সদস্যও ছিলেন তিনি
2021 সালে বিধানসভার দুই কমিটি থেকেই ইস্তফা দেন

ব্যারাকপুর নৈহাটিতে কান পাতলেই শোনা যাচ্ছে দাপুটে নেতা অর্জুন সিং দলে ফিরে আসাতে আবারও তিনি কোণঠাসা হয়ে পড়ছেন দলের মধ্যেই। তবে তিনি জনমুখী বেশ কয়েকটি কাজের মাধ্যমে শিরোনামেই থাকছেন। ব্যারাকপুরে কর্মমেলায় বহু বেকার যুবক যুবতী চাকরি পেয়েছেন তারই সহযোগিতায়। ফলে পোড় খাওয়া রাজনীতিবিদের মতোই, তিনি স্রেফ মাসল পাওয়ার নয়, বরং মানুষের মন জিতেই নিজের জায়গা দৃঢ় করছেন। রাজনীতিতে কোনও কিছুই স্ট্যাটিক নয়। তাই অর্জুন দলে ঢোকার পরেও নিজের পায়ের তলার মাটি শক্ত রাখতে যা যা দরকার, সবই করছেন পার্থ ভৌমিক।