Date : 2022-08-11

২১ জুলাই দিদির ভাষণ। লাইভে শুনবে সারা দেশ।

সঞ্জু সুর,সাংবাদিক:- গত দুই বছর করোনার কারণে তৃণমূল কংগ্রেসের বাৎসরিক শহিদ তর্পণ অনুষ্ঠান ধর্মতলায় করা সম্ভব হয় নি। বদলে কালীঘাটের বাড়ি সংলগ্ন মঞ্চ থেকে ভার্চুয়াল ভাষণ দিয়েছেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এবার অবশ্য করোনার প্রকোপ কম থাকায় ধর্মতলাতেই সমাবেশ করতে চলেছে তৃণমূল। দুই বছর পর এই সমাবেশ হবে যেখানে রেকর্ড ভিড়ের আশা করছে তৃণমূল কংগ্রেস। তবে ভিক্টোরিয়া হাউজের সামনে থেকে দিদি ও অভিষেকের ভাষণ শুধু কলকাতায় এসেই শুনতে হবে তা কিন্তু নয়, ভিন রাজ্যের তৃণমূল কর্মি, সমর্থকেরা নিজ নিজ রাজ্যে বসেই শুনবেন অভিষেক বা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কি বলেন।

২০২১ সালের ২১ জুলাই দিল্লির কনস্টিটিউশন ক্লাবে তৃণমূল নেতাদের আমন্ত্রণে সামিল হয়েছিলেন দেশের বিজেপি বিরোধী একাধিক রাজনৈতিক দলের হুজ হু’রা। সেদিন জাতীয় রাজনীতির নেতা নেত্রীদের সামনে তৃণমূল সুপ্রিমো আবেদন করেছিলেন ২০২৪ এর লোকসভা নির্বাচনে দিল্লি থেকে বিজেপিকে উৎখাত করতে হলে এখন থেকেই জোটবদ্ধ হোক সম মনোভাবাপন্ন বিজেপি বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলো। দিদির দেওয়া সেই ডাক একবছর পার হতে চললো। সাম্প্রতিক সময়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উদ্যোগে‌ই রাষ্ট্রপতি নির্বাচন নিয়ে সাময়িকভাবে একজোট হতে পেরেছে বিজেপি বিরোধী প্রায় ১৮ টি রাজনৈতিক দল। তারা সম্মীলিত ভাবে যশবন্ত সিনহাকে প্রার্থী করেছে। এমন সময় রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের ঠিক পর পরেই ২১ জুলাই সমাবেশ। ২০২১ এ দিল্লি ছাড়াও ত্রিপুরা, অসম, গোয়া, উত্তরপ্রদেশ এমনকি গুজরাটেও তৃণমূল নেত্রীর ভাষণ সরাসরি জায়ান্ট স্ক্রিনের মাধ্যমে সম্প্রচার করা হয়েছিল। গতবারের মতো এবারেও পশ্চিমবঙ্গ ছাড়া ভিন রাজ্য যেখানে ইতিমধ্যেই তৃণমূল কংগ্রেস তাদের সংগঠন তৈরি করতে শুরু করেছে, সেখানে দলনেত্রীর ভাষণ সরাসরি সম্প্রচার করবে।

ত্রিপুরার দায়িত্বে থাকা রাজ্যের প্রাক্তণ মন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, “ত্রিপুরার তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মি সমর্থকদের মধ্যে প্রবল উৎসাহ রয়েছে দলনেত্রীর ভাষণ শোনার। কিন্তু অসমের ভয়াবহ বন্যার ফলে ত্রিপুরার সঙ্গে অসমের রেল যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন। ফলে ট্রেনে করে যাওয়া সম্ভব নয়। এদিকে রাস্তার অবস্থাও ভালো নয়। তাই প্রদেশ তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি আগরতলায় আমাদের দলীয় কার্যালয়ে দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও যুব আইকন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় এর ভাষণ শোনানো হবে। পাশাপাশি জেলায় জেলায় যেখানে আমাদের কার্যালয় আছে সেখানেও জায়ান্ট স্ক্রীনে দলনেত্রীর ভাষণ শোনানো হবে।” তবে শুধু ত্রিপুরাই নয়, তৃণমূল কংগ্রেস সূত্রে খবর, অসম, মেঘালয়, মনিপুর, মিজোরাম, গোয়া এসব জায়গাতেও দলনেত্রী ও অভিষেকের ভাষণ সম্প্রচার করা হবে। ডিজিটাল যুগের সুবিধা নিয়ে টুইটার, ফেসবুক, ইউটিউব এও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভাষণ সরাসরি সম্প্রচার করা হবে বলেই সূত্রের খবর।