Date : 2022-09-27

অধ্যাপকদের অধিকার নিশ্চিত করার দায়িত্ব কলেজ বিশ্ব বিদ্যালয় গুলির: হাইকোর্ট

ষষ্ঠী চট্টোপাধ্যায়, সাংবাদিক:- শিক্ষার যেমন অধিকার সকলের তেমনি যাঁরা শিক্ষাদেন তাঁদের অধিকার থেকে বঞ্চিত করার অধিকার নেই কলেজ বিশ্ব বিদ্যালয় গুলিরও।মামলার পরিপ্রেক্ষিতে মন্তব্য বিচারপতি কৌশিক চন্দ্রের।

আবেদনকারী শমপুজা গঙ্গোপাধ্যায় ২০১৯সালের জুন মাসে উত্তর ২৪,পরগনার বানীপুর মহিলা কলেজে ইংরেজি বিষয়ে অতিথি শিক্ষিকা হিসেবে যোগদান করেন।বর্তমানে তিনি এখনও ওই কলেজে অধ্যাপিকা হিসেবেই নিযুক্ত রয়েছেন।
গত ২৩শে ডিসেম্বর ২০১৯ সালে রাজ্যের উচ্চ শিক্ষা দফতরের পক্ষ থেকে একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করে।সেই বিজ্ঞপ্তিতে কলেজ, বিশ্ব বিদ্যালয় কতৃপক্ষের কাছে নির্দেশ ছিল যাঁরা যাঁরা অস্থায়ী এবং অতিথি অধ্যাপক বা অধ্যাপিকা হিসেবে নিযুক্ত হয়েছেন তাঁদের চাকুরী নিরাপত্তা বিষয়ে যেখানে বেতনকাঠামো ২০হাজার থেকে ৩১,হাজার টাকা পাশাপাশি অবসারকালীন ৫লক্ষ টাকা দেওয়া হবে।
রাজ্যের উচ্চ শিক্ষা দফতর সেই বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছিল কলেজ বিশ্ব বিদ্যালয় কতৃপক্ষ নিজ নিজ কলেজে কতজন অস্থায়ী এবং অতিথি অধ্যাপক ও অধ্যাপিকা রয়েছেন তাঁদের নামের তালিকা পাঠাতে হবে।মামলাকরির অধ্যাপিকা শমপুজা গঙ্গোপাধ্যায়ের অভিযোগ স্বজনপোষণএবং রাজনৈতিক দ্বারা স্বীকার হয়েছেন তিনি।কারণ অনেক কলেজেই অতিথি অধ্যাপক ও অধ্যাপিকাদের নাম কলেজ কর্তৃপক্ষ ইচ্ছাকৃতভাবে পাঠায়নি।যার মধ্যে রয়েছেন আবেদনকারী নিজেই।

আবেদনকারী শমপূজা গঙ্গোপাধ্যায় বার বার কলেজ এবং ডাইরেক্টর অফ পাবলিক ইন্সট্রাকশন হায়ার এডুকেশন ডিপার্টমেন্টকে জানিয়েও কোন কাজ না হওয়ায় আদালতের দ্বারস্থ হন তিনি।

শুক্রবার বিচারপতি কৌশিক চন্দ্রের এজলাসে মামলা শুনানি চলাকালীন আবেদনকারী শমপূজা গঙ্গোপাধ্যায়ের আইনজীবী আশিষ কুমার চৌধুরী জানান একজন অতিথি অধ্যাপিকা ১৯ডিসেম্বর ২০১৯ সালের সরকারি নির্দেশিকা অনুযায়ী প্রাপ্ত সুবিধা পাওয়ার ন্যায়সঙ্গত অধিকার।কলেজ কর্তৃপক্ষ এবং উচ্চ শিক্ষা দফতর তাঁকে অধিকার থেকে বঞ্চিত করতে পারে না।এবং তাঁকে অন্যায় ভাবে প্রাপ্ত সুবিধা থেকে বঞ্চিত করা হচ্ছে।শুধু তাই নয় সামান্য বেতনে পূর্ণ অধ্যাপিকাদের ন্যায় কাজ করানো হচ্ছে।

বিচারপতি ডাইরেক্টর অফ পাবলিক ইন্সট্রাকশন হায়ার এডুকেশন ডিপার্টমেন্টকে(DIP)নির্দেশ দেন সরকারি বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী আবেদনকারীর প্রাপ্ত সুযোগ সুবিধা দেওয়ার যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণ করবেন আগামী ৪সপ্তাহের মধ্যে।