Date : 2022-09-27

একটি পুজো মণ্ডপে ঠাকুর দর্শনে পোষ্যদেরও স্বাগত

শাহিনা ইয়াসমিন, সাংবাদিক:- প্রতিমা দর্শনে স্বাগত পোষ্যেরাও, সেটা কুকুর হোক বা বিড়াল বা কোনো পাখি। উদ্যোগী পুজো কমিটি বিধান সরণি অ্যাটলাস ক্লাব। এছাড়া পুজো মণ্ডপে দর্শনার্থীদের পাশাপাশি পোষ্যদের জন্যে থাকছে মাস্ক ও স্যানিটাইজারের ব্যবস্থা।


পুজোর চারদিন সাধারণ দর্শনার্থীদের জন্য মণ্ডপ খুললেও পৃথক ব্যবস্থা রাখা হচ্ছে পোষ্যদের জন্য । চালু হচ্ছে একটি হেল্পলাইন নম্বরও। এই নম্বরে যোগাযোগ করে অনায়াসে মণ্ডপে ঢুকতে পারবেন শুধুমাত্র পোষ্য এবং তাদের অভিভাবকেরা। চতুর্থী থেকে দশমী পর্যন্ত সাধারণ দর্শনার্থীদের জন্য মণ্ডপ খুললেও পৃথক ব্যবস্থা রাখা হচ্ছে সে ক্ষেত্রেও।

চালু হচ্ছে একটি হেল্পলাইন নম্বর। তাতে ফোন করে জানালেই হবে। সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির নাম, ফোন নম্বর লিখে নিয়ে মণ্ডপের কাছে হেল্প ডেস্কে দেখা করতে বলা হবে। সেখান থেকে আলাদা পথে নিয়ে গিয়ে পোষ্য ও তার অভিভাবককে মণ্ডপ ঘুরিয়ে দেখাবেন পুজো কমিটিরই সদস্যরা। এ বছর এমনই ‘পেট ফ্রেন্ডলি’ বা পোষ্যবান্ধব দুর্গাপুজো করছে বিধান সরণি অ্যাটলাস ক্লাব। এই প্রথম এবং সমাজের প্রতি বার্তা দেওয়াই এর উদ্দেশ্য। ৪০তম বর্ষ পদাপর্ন তাদের। এবারে তাদের থিমও পোষ্যদের নিয়ে। এই পুজো হয় শ্যামবাজার ট্রাম ডিপোর উল্টো দিকের রাস্তায়। পোষ্য নিয়ে প্রবেশের জন্য থাকছে আলাদা পথ। ভিড় দেখে অথবা এক জায়গায় অনেকগুলি পোষ্য এসে পড়লে তারা উত্তেজিত হয়ে একে অপরকে আক্রমণ করতে পারে। সে কথা ভেবে কুকুরদের সামলাতে কয়েক জন হ্যান্ডলারের সঙ্গে কথা বলা হচ্ছে। মণ্ডপে রাখা হবে পশু চিকিত্সক এবং অক্সিজেনের ব্যবস্থাও। কলকাতা কর্পোরেশনও পুলিশ প্রশাসনকে এ বিষয়ে চিঠি দেওয়া হয়েছে। মণ্ডপে থাকবে পশু চিকিত্সকের ব্যবস্থাও। করোনা দিকটা মাথায় রেখে শুধু দর্শনার্থীদের জন্য নয় পোষ্যদের জন্যও থাকছে স্যানিটাইজার ও মাস্কের ব্যবস্থা।