Date : 2022-09-27

নীল সাদা স্কুল ড্রেস পেয়ে খুশি ছাত্র ছাত্রীরা

নাজিয়া রহমান, সাংবাদিক : বদলে গেল সরকারি ও সরকারি সাহায্যপ্রাপ্ত স্কুলের পড়ুয়াদের ইউনিফর্মের রঙ। পশ্চিমবঙ্গের সমস্ত সরকারি স্কুলের পোশাকের রঙে আর পার্থক্য রইল না। মুখ্যমন্ত্রীর প্রিয় রঙ নীল সাদা। সেই রঙের স্কুল ড্রেস তৈরির কাজ শেষ। স্কুলে স্কুলে পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে সেই পোশাক। নীল সাদা রঙের নতুন পোশাক পেয়ে খুশি ছাত্র ছাত্রীরা।

নীল সাদা রঙের স্কুল ইউনিফর্ম আর তাতে বিশ্ব বাংলার লোগো। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভাবনা আজ বাস্তবায়িত। ধীরে ধীরে বদলে যাচ্ছে রাজ্যের সমস্ত সরকারি ও সরকারি সাহায্য প্রাপ্ত স্কুলের পোশাকের রঙ। নীল সাদা রঙের স্কুল ইউনিফর্ম তৈরির কাজ শেষ। স্কুলে স্কুলে পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে সেই পোশাক। আর প্লাসের ক্যামেরা পৌঁছে গেছিল বাইপাশের আনন্দপুর এলাকার হোসেনপুর ফ্রী প্রাইমারি স্কুলে। এই স্কুলে ইউনিফর্মের রঙ আগে ছিল বেগুনি ও খয়রি। বেগুনি চেক সার্ট আর খয়রি রঙের প্যান্ট ও স্কার্ট। যা এখন বদলে হয়েছে নীল সাদা। আর আছে বিশ্ববাংলার লোগো। করোনাকালে প্রায় দু বছর বন্ধ ছিল স্কুল। এই দুবছরে কারো ড্রেস ছোট হয়ে যায় আবার কারো ছিঁড়ে গেছিল। তাই নীল সাদা রঙের নতুন স্কুল ড্রেস পেয়ে খুশি পড়ুয়ারা।

স্কুল ড্রেসের রঙ দিয়ে সহজেই বোঝা যেত সংশ্লিষ্ট পড়ুয়া কোন স্কুলের। যা আর সম্ভব নয় বলে মত শিক্ষকমহলের। তবে সমস্ত সরকারি স্কুলের পড়ুয়াদের ইউনিফর্মের রঙ নীল-সাদা হওয়াকে স্বাগতই জানাচ্ছেন হোসেনপুর ফ্রী প্রাইমারি স্কুলে শিক্ষক শিক্ষিকারা।

স্কুলের ইউনিফর্ম স্কুলের ঐতিহ্য। রঙ পরিবর্তনের ফলে তা স্কুলের ঐতিহ্যে আঘাত হানা হচ্ছে বলে বিতর্ক দানা বাধে। তবে সব বিতর্কের আবসান ঘটিয়ে। নীল সাদা রঙের পোশাকেই শিলমোহর পড়ে। যে পোশাক এবার পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে স্কুলে স্কুলে। পুজোর আগেই রাজ্যের সমস্ত সরকারি ও সরকারি সাহায্য প্রাপ্ত স্কুলের পড়ুয়ারা নতুন পোশাক পেয়ে যাবে বলেই মত শিক্ষা দফতরের আধিকারিকদের।