Date : 2022-09-27

মেয়াদ উত্তীর্ণ, আদালতের নির্দেশে অপসারিত থাইল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী

সোমদত্তা বসু , নিউজ ডেস্ক : সাংবিধানিক মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়ে যাওয়ার পরেও মসনদ ছাড়েননি থাইল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী। শীর্ষ আদালতের রায়ে পদচ্যুত করা হল প্রয়ুত-চ্যাং-ও-চাকে। ২০১৪ সালে সামরিক অভ্যুত্থানের দ্বারা থাইল্যান্ডের ক্ষমতা দখল করেন প্রয়ুত-চ্যাং-ও-চা। ২০১৯ সালে সাধারণ নির্বাচনে জয়লাভ করেন তিনি। বিরোধী দলের তরফে অভিযোগ করা হয় এই নির্বাচন স্বচ্ছ ছিল না। সাংবিধানিক নিয়ম অনুসারে থাইল্যান্ডে ৮ বছরের বেশি কেউ প্রধানমন্ত্রী পদে থাকতে পারবেন না। সেই নিয়ম বদলে সুকৌশলে ক্ষমতা ধরে রাখার চেষ্টা করেছিলেন প্রয়ুত। মার্কিন সংবাদ মাধ্যমের তরফে জানানো হয়েছে, প্রধানমন্ত্রীর ক্ষমতার সময়সীমা বৃদ্ধির বিষয়ে থাইল্যান্ডের সাংবিধানিক আদালত পর্যালোচনার পর চূড়ান্ত সময়সীমা দেবে বলে জানিয়েছে।

প্রয়ুতের ক্ষমতা বৃদ্ধি অসাংবিধানিক বলে আদালতে জানিয়েছে বিরোধীদল। সংসদে একাধিকবার তার বিরুদ্ধে অনাস্থ প্রস্তাব এনেছে বিরোধীরা। অনাস্থা প্রস্তাব উপেক্ষা করেও নিজের সিদ্ধান্তে অনড় থেকেছেন প্রয়ুত। পদ আঁকড়ে থাকার সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আদালতের দ্বারস্থ হয় বিরোধীদলগুলি। এরপর আদালত তার রায় প্রয়ুতকে তার পদ থেকে অপসারণের নির্দেশ দিয়েছে। আপাতত অন্তর্বর্তীকালীন প্রধানমন্ত্রী হিসাবে দায়িত্বভার সামলাবেন সে দেশের উপপ্রধানমন্ত্রী প্রাউইত ওংসুয়ান। পরিস্থিতি অনুযায়ী থাইল্যান্ডের সাধারণ নির্বাচন এগিয়ে আনা হতে পারে।