Date : 2022-09-27

পুজোর ছুটি বাতিল। ডেঙ্গি মোকাবিলায় কড়া পদক্ষেপ নবান্নের।

সঞ্জু সুর, সাংবাদিক ঃ রাজ্যে বেড়ে চলা ডেঙ্গি নিয়ে উদ্বিগ্ন প্রশাসন কড়া পদক্ষেপ নিলো। পুজোর ছুটি বাতিল করা হলো ডেঙ্গি মোকাবিলায় নিযুক্ত কর্মিদের। শুক্রবার মুখ্যসচিবের নেতৃত্বে বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

ডেঙ্গির নতুন প্রজাতি (ডেন-থ্রি) যে যথেষ্ট চিন্তাদায়ক তার ইঙ্গিত ইতিমধ্যেই দিয়েছেন কলকাতা পুরসভার মেয়র তথা রাজ্যের পৌর বিষয়ক মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। এই বিষয়ে বিধানসভাতেও বিবৃতি দিয়েছেন তিনি। রাজ্য সরকার‌ও ডেঙ্গির বাড়বাড়ন্ত নিয়ে যথেষ্ট উদ্বিগ্ন। এর আগে দু’দফায় ৮ জুলাই ও ৫ আগষ্ট এর বৈঠক থেকে রাজ্যের সব জেলাগুলোকে ডেঙ্গি নিয়ে সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছিলেন মুখ্যসচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদী। সেই সঙ্গে বেশকিছু নির্দেশিকাও দিয়েছিলেন তিনি। তারপরেও দেখা যাচ্ছে কলকাতা শহর সহ হাওড়া, হুগলী, মূর্শিদাবাদ, উত্তর দিনাজপুর ও জলপাইগুড়ি প্রভৃতি জেলার ডেঙ্গি সংক্রমণ চিন্তার ভাঁজ ফেলেছে স্বাস্থ্য দফতরের কর্তাদের কপালে। বিশেষভাবে সতর্ক করা হয়েছে উত্তর ২৪ পরগণা ও জলপাইগুড়ি জেলাকে। শুক্রবারের বৈঠকে এই জেলাগুলোর জেলাশাসকদের তো বটেই অন্য জেলাশাসকদের‌ও অতিরিক্ত সতর্ক থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে নবান্ন সূত্রে খবর। জানা গিয়েছে বৈঠকে মুখ্যসচিব বলেন, আগে জীবন বাঁচাতে হবে, তারপর অন্য কিছু। ডেঙ্গি মোকাবিলায় যেসব কর্মিরা নিযুক্ত রয়েছেন তাদের সকলের পুজোর ছুটি বাতিল বলে বৈঠকে জানিয়ে দেন মুখ্যসচিব। সেই সঙ্গে যে জেলাগুলোতে এই মূহুর্তে ডেঙ্গির প্রকোপ বেশি সেইসব জেলার জেলাশাসকদের বলা হয়েছে যদি কেউ জ্বরের জন্য ওষুধের দোকান থেকে প্যারাসিটামল জাতীয় কোনো ওষুধ কেনে তাহলে তার নাম, ঠিকানা, ফোন নম্বর যেন দোকানদার নিয়ে রাখে সেটা নিশ্চিত করতে হবে। এর পাশাপাশি সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে পরিকাঠামো বাড়ানোর উপর জোর দেওয়া হয়েছে। ডেঙ্গি আক্রান্ত রোগী যাতে যথাযথ চিকিৎসা পান তা সুনিশ্চিত করতে হবে, শহরাঞ্চলে পৌর প্রতিনিধিদের সঙ্গে প্রয়োজনে বৈঠক করতে, পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা দিকে অধিক নজর, ডেঙ্গি নিয়ে সচেতনতা শিবির সহ প্রচারে জোর দিতে হবে বলেও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে খবর।