Date : 2022-12-03

নভেম্বরের আগে শীত নয়। ঘূর্ণিঝড়ের আফটার এফেক্টস এর কারণেই শীত অনুভূত করছে রাজ্যবাসী।

শাহিনা ইয়াসমিন, সাংবাদিক: কালীপুজো মিটতেই আবহাওয়ায় বড় বদল। সপ্তাহের শেষে রেকর্ড নামল তাপমাত্রার পারদ। অক্টোবরের শেষে উত্তুরে হাওয়ার দাপট বাংলায়। আবহাওয়া দফতর সূত্রে খবর বিগত ১০ বছরে তাপমাত্রার পতন দেখেনি শহরবাসী। শনিবার কলকাতায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৯ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। হেমন্তের হিমেল পরশে রীতিমত ঠান্ডা অনুভব করছে রাজ্যবাসী। আলিপুর আবহাওয়া দফতর সূত্রে খবর উত্তরবঙ্গের দার্জিলিঙ সহ বেশ কিছু জায়গায় তাপমাত্রার পারদ পতন ঘটেছে। দার্জিলিঙে গতকাল একধাক্কায় তাপমাত্রা নেমেছে প্রায় ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। তবে এই মুহূর্তে রাজ্যে শীতের প্রবেশের সম্ভাবনা নেই। আলিপুর জানিয়েছে, এক্ষুনি শীতের কোনও সম্ভাবনা নেই।

শীতের আমেজের জন্য রাজ্যবাসীকে অপেক্ষা করতে হবে নভেম্বর মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহ পর্যন্ত। তবে পুরোপুরি শীত প্রবেশ করবে আগামী ১৫ ডিসেম্বর নাগাদ। তবে নভেম্বর মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহ থেকেই শীতের আমেজ পাবে রাজ্যবাসী। আলিপুর হাওয়া অফিস জানাচ্ছে মূলত ঘূর্ণিঝড় সিতরাং-এর জেরেই এই পারদ পতন। শীত নয় এই পারদ পতন ঘূর্ণিঝড়ের আফটার এফেক্ট মাত্র। কয়েকদিনের মধ্যেই ফের বাড়বে আপেক্ষিক আর্দ্রতা। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বাড়বে তাপমাত্রাও। শীতের আমেজ পেতে রাজ্যবাসীকে অপেক্ষা করতে হবে অন্তত নভেম্বরের দ্বিতীয় সপ্তাহ পর্যন্ত।