Date : 2022-12-06

গ্যাসের সমস্যার সমাধান ৩ পানীয়তে

সঞ্জনা লাহিড়ী, সাংবাদিক – সঠিক সময়ে বাড়ির তৈরি খাবার খাচ্ছেন কিন্তু তারপরেও মাথা যন্ত্রণা, পেটে হালকা ব্যথা, বমি বমি ভাব। গ্যাসের এই সমস্যা গুলোয় ভোগেন অনেকেই। লক্ষণগুলো দেখা দেয় অনেকেরই। অনেকক্ষণ না খেয়ে থাকলে কিংবা বাইরের খাবার বেশি খেলে সাধারণত গ্যাস বা এসিডিটির সমস্যা হয়। বেশি ফাইবার, চর্বি, অত্যাধিক লবণযুক্ত খাবার খেলেও পেটে গ্যাস হতে পারে।

দুগ্ধজাত খাবার, গ্লুটেন বা ফ্রুক্টোজ যুক্ত খাবারও কিন্তু গ্যাসের সমস্যার কারণ হতে পারে। খাওয়ার পর প্রায়শই গ্যাস হলে অতি অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া জরুরি। তবে গ্যাসের কষ্ট থেকে তাৎক্ষনিক স্বস্তি পেতে আপনাকে সাহায্য করতে পারে কয়েকটি বিশেষ পানীয়। ভরপেট খেয়ে ওঠার পর যদি গ্যাসের সমস্যা হয়, তাহলে এই পানীয়গুলো খেতে পারেন

১) শসার শরবত : পেটের স্বাস্থ্য ভাল রাখতে শসার মতো উপকারী বস্তু খুব কম আছে। গ্যাস হলে তা নিমিষেই কমাতে সাহায্য করে শসা। কিভাবে বানাবেন এই শরবত? ২ টেবিল চামচ দই, পুদিনা পাতা, আদা কুচি, মৌরি এবং সামান্য জল, এই উপকরণগুলো একসঙ্গে মিশিয়ে তৈরি করতে পারেন জাদুকরী এই পানীয়।

২) তরমুজের শরবত : তরমুজ পেট ভারী করে, এমন ধারণা অনেকেই পোষণ করেন। পুষ্টিবিদদের মতে তরমুজে জলের পরিমাণ অনেকটাই বেশি। ফলে পেট ভারী হওয়ার কোনও আশঙ্কা নেই। তাই গ্যাসের সমস্যা দূর করতে অনায়াসে ভরসা রাখতে পারেন তরমুজের শরবতে। কিভাবে বানাবেন? কয়েক টুকরো তরমুজ, আনারস, শসা এবং আদার পাতলা টুকরো মিশিয়ে ব্লেন্ড করে এই বিশেষ পানীয় তৈরি করে নিন। দারুণ উপকার পাবেন।

৩) আদা চা : শরীর সুস্থ রাখতে আদার তুলনা হয় না। ঠান্ডা লেগে সর্দি- কাশি থেকে শুরু করে গ্যাসের সমস্যা, সব কিছুতেই আদা দারুণ কাজ করে। গ্যাসের সমস্যা কমাতে ভরসা রাখতে পারেন এই পানীয়ে। বানানোর পদ্ধতি খুবই সহজ। ১ চা চামচ মৌরি, জিরা, এক চিমটে হলুদ, ২টি লবঙ্গ এবং অবশ্যই আদা নিন। সব একসঙ্গে জলে ফুটিয়ে নিন। এরপর ছেঁকে নিন পানীয়টা। একটু ঠান্ডা হলে খেয়ে ফেলুন। তাৎক্ষণিক উপকার পাবেন।