Date : 2022-12-06

অনলাইনে বুক করে আপনার ইচ্ছে মতো দিনেই ধান বিক্রি করুন। খাদ্য দফতরের নতুন সুযোগ।

সঞ্জু সুর, সাংবাদিক : রাজ্যজুড়ে প্রায় সারা বছরই নিয়মিত ব্যবধানে কৃষকদের থেকে ধান সংগ্রহ করে থাকে খাদ্য দফতর। এরজন্য জেলায় জেলায় কৃষক মান্ডিতে ক্যাম্প করা হয়। নির্দিষ্ট দিনে কৃষকরা তাদের কাছাকাছি ক্যাম্পে গিয়ে সরকারকে ধান বিক্রি করে থাকে। এবার এই কর্মপদ্ধতিতে কিছুটা বদল আনলো রাজ্য খাদ্য দফতর। বলা ভালো, কৃষকদের সুবিধার্থে তাদের ইচ্ছামতো দিনে ধান বিক্রি করার সুযোগ করে দেওয়া হল।

এতদিন রাজ্য কৃষি দফতর বিভিন্ন জেলায় যে ধান সংগ্রাহক ক্যাম্প করতো, সেই ক্যাম্পে এসে কৃষকরা তাদের ধান বিক্রি করতো। এক্ষেত্রে কৃষকরা তাদের বাড়ির কাছাকাছি ক্যাম্পে ধান বিক্রি করতো, কারণ সেক্ষেত্রে তাদের পরিবহন জনিত খরচ কম হতো। কিন্তু কোনো কারণে নির্দিষ্ট দিন মিস্ করে গেলে তাদেরকে হয়তো দূরবর্তী কোনো ক্যাম্পে যেতে হতো। এরফলে তাদের খরচ বেড়ে যেতো। অনেকে বর্ধিত খরচের ভয়ে আর দূরবর্তী কোনো ক্যাম্পে না গিয়ে এলাকার ফড়েদের কাছে অপেক্ষাকৃত কম দামে ধান বিক্রি করে দিতে বাধ্য হতো। এসব কথা মাথায় রেখে রাজ্য খাদ্য দফতর কৃষকদের সুবিধার্থে অনলাইন পরিষেবার সুযোগ নিয়ে এসেছে।

এর ফলে কোনো একজন কৃষক তার এলাকায় নিজের ইচ্ছে মতো দিনেই ধান বিক্রি করতে পারবে। এরজন্য কি কি করতে হবে তা বিজ্ঞপ্তি দিয়ে জানিয়ে দিয়েছে রাজ্য খাদ্য দফতর। বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, একজন কৃষক তার রেজিস্টার্ড মোবাইল থেকে খাদ্য দফতরের ওয়েব পোর্টাল www.procurement.wbfood.in এ গিয়ে তার জেলার তার বাড়ির কাছাকাছি এলাকার কোনো একটি ক্যাম্পে (তালিকাভুক্ত স্থায়ী ক্যাম্প হোক বা অস্থায়ী, অথবা মোবাইল ক্যাম্পে) পরবর্তী তিরিশ দিনের মধ্যে নিজের ইচ্ছে মত একটি দিন নিজেই ঠিক করে নিতে পারবেন। নির্দিষ্ট দিনে যদি তিনি ক্যাম্পে পৌঁছাতে না পারেন, তাতেও অসুবিধা নেই। নিজের ঠিক করা দিনের দশ দিন পর আবার নতুন দিন তিনি নিজেই বুক করতে পারবেন। প্রয়োজনে ধান বিক্রির নির্দিষ্ট দিনের তিন আগেও দিন পরিবর্তন করা যাবে এই অনলাইন পরিষেবার মাধ্যমে।

এছাড়াও যদি কোনো কৃষক তার রেজিস্টার্ড মোবাইল নম্বর বা ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট সংক্রান্ত তথ্য‌ পরিবর্তন করতে চান সেটাও করা যাবে বলে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে। খাদ্য দফতরের আধিকারিকদের বক্তব্য এই অনলাইন ব্যবস্থাপনায় একদিকে যেমন কৃষকদের হয়রানি অনেক কমবে তেমনি ধান ক্রয়ের ক্ষেত্রে অনেক বেশি স্বচ্ছতা আসবে।