Date : 2023-02-02

স্কুলে মোবাইল ব্যবহারে কড়া প্রশাসন

নাজিয়া রহমান, সাংবাদিক:- ফের স্কুল চত্ত্বরে মোবাইল ফোনের ব্যবহার নিয়ে কড়া নির্দেশিকা। মধ্যশিক্ষা পর্ষদের পর এবার জেলা ভিত্তিক নির্দেশিকা। নদীয়া জেলার বিডিও অফিস থেকে স্কুলে মোবাইল ব্যবহার নিয়ে কড়া নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে। যদিও এই নির্দেশিকা নিয়ে সমালোচনার ঝড় শিক্ষকমহলে।

নদীয়া জেলার বিডিও অফিসের তরফ থেকে মোবাইল ফোনের ব্যবহার নিয়ে একটি নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে। যেখানে স্কুল চত্বরে মোবাইল ফোনের ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। পড়ুয়াদের পাশাপাশি শিক্ষক-শিক্ষিকাদেরও মোবাইল ফোনের ব্যবহারে সতর্কতা অবলম্বন করার বিষয়ে জোর দেওয়া হয়েছে। নির্দেশিকা অনুযায়ী পড়ুয়ারা স্কুলে যেমন মোবাইল ফোন আনতে পারবেন না তেমনি ক্লাসরুমের মধ্যে শিক্ষক- শিক্ষিকারা মোবাইল ফোন ব্যবহার করতে পারবেন না। চলতি বছরের শুরুতেই মোবাইল ফোনের ব্যবহার নিয়ে কড়া নির্দেশিকা জারি করেছিল মধ্যশিক্ষা পর্ষদ। ক্লাসরুম, ল্যাব, কিংবা লাইব্রেরিতে শিক্ষক-শিক্ষিকা সহ শিক্ষাকর্মীরাও মোবাইল ফোন ব্যবহার করতে পারবেন না। যদি একান্ত কোন কারণে ব্যবহার করতে হয় সেক্ষেত্রে প্রধান শিক্ষক বা শিক্ষিকার অনুমতি প্রয়োজন। মধ্যশিক্ষা পর্ষদের নির্দেশিকা ঘিরে যেমন বিতর্কের ঝড় ওঠে তেমনই এই নির্দেশিকাকে স্বাগত জানিয়েছিলেন একাধিক শিক্ষক সংগঠন। মোবাইল ফোনের ব্যবহার নিয়ে শিক্ষকদের একাংশের মত, ফোন জনজীবনের এক অপরিহার্য অঙ্গ হয়ে গেছে। রেফারেন্সের জন্য মোবাইল ফোন যেমন ব্যবহার করা হয়। তেমনই অনেক এমন শিক্ষক শিক্ষিকা থাকেন যাদের বৃদ্ধ বাবা-মার খোঁজ খবর নিতে মোবাইলটাই অন্যতম মাধ্যম। যদিও খুব প্রয়োজন না হলে কোনও শিক্ষক শিক্ষিকাই মোবাইল ফোন ব্যবহার করেন না। মধ্যশিক্ষা পর্ষদের পর এবার নদীয়া জেলার বিডিও অফিস থেকে সংশ্লিষ্ট জেলার স্কুলগুলিকে মোবাইল ফোন নিয়ে নির্দেশিকা পাঠানো হল। বিডিও অফিসের তরফ এমনই নির্দেশিকা পাঠানো নিয়ে সমালোচনার ঝড় শিক্ষকমহলে।