Date : 2024-06-25

১০০ বছরের দোরগোড়ায় বরকত আলি অ্যান্ড ব্রাদার্স।

শাহিনা ইয়াসমিন, সাংবাদিক :- আদ্যোপান্ত বিদেশি সুট পড়ার সুপ্ত বাসনা আমাদের কম বেশি সকলের মধ্যে রয়েছে। সেই বাসনা পূরণ করার সুযোগ কিন্তু আমরা ছারি না। তাই যেকোনো অনুষ্ঠানে সুট পড়ার চল আছে। বাঙালি হোক বা অবাঙালি সবাই সুট পড়ে থাকেন। সুট তৈরি করার জন্যে নামি দামী অনেক দর্জির দোকান আছে কলকাতার বুকে। তবে সব থেকে পুরোনো কোর্ট – প্যান্ট বা সুটস তৈরি করে এমন একটি দর্জির দোকানের সন্ধান পাওয়া গেলো। নাম বরকত আলি অ্যান্ড ব্রাদার্স। ১২ সি পার্ক স্ট্রিট এ অবস্থিত বরকত আলি অ্যান্ড ব্রাদার্স। পার্ক হোটেলের ঠিক বিপরীতে অবস্থিত এই দোকানটি। ১৯২৪ সালে দোকানটি অবস্থিত হয়। এই দোকানের প্রতিষ্ঠাতা হলেন বরকত আলি। জন্মগ্রহণ হয়েছিল পাকিস্তানের শিয়াল কোর্টে। তখনকার সময়ে ব্রিটিশদের পোশাক ও আর্মিদের পোশাক তৈরি করা হতো।

১০০ ছুঁয় ছুঁই দোকানটি। বরকত আলি অ্যান্ড ব্রাদার্স এর চথুর্ত পুরুষ ও কর্ণধার খুরশদ আলম বরকত আলির দাবি – তারা শুধু পোশাক তৈরি করেন না। পোশাকের সঙ্গে ওই মানুষের ব্যাক্তিত্বরও মেলবন্ধন ঘটান। দুর্গা পুজোয় যখনই বিদেশিরা আসে কলকাতায় একবার হলেও ঢু মারেন এই দোকানে। ওয়েস্ট কোর্ট, সুটস,ব্লেজার, তৈরি করা হয় এখানে। এই দোকানের বিশেষত হলো যে অভিনেতা উত্তম কুমার বরাবর এই দোকান থেকে পোশাক তৈরি করতেন। এমনকি শিল্পী মকবুল ফিদা হুসেন, দিলীপ কুমার, সাশি কাপুর যখনই কলকাতায় আসতেন বরকত আলি অ্যান্ড ব্রাদার্স থেকেই পোশাক তৈরি করতেন। প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী জ্যোতি বসুর পরিবার এই দোকান থেকে পোশাক তৈরি করেন। এমনকি ক্রিকেটার সৌরভ গাঙ্গুলি, ইউসুফ পাঠান এবং রাজনৈতিক অনেক বিখ্যাত ব্যক্তিত্বরাও আজও এই দোকানের তৈরি করা পোশাক পড়েন।

এমনকি জ্যোতি বসু ছেলে চন্দন বসু এই দোকানে এসেছেন। অমিতাভ বচ্চনের ব্ল্যাক মুভি তে যেসব কোর্ট অমিতাভ পড়েছেন সেইসব ড্রেস এই দোকানের তৈরি বললেন খুরশদ আলম বরকত আলি। সময়ের সঙ্গে পরিবর্তন হয়েছে এই দোকানের পোশাক তৈরির স্টাইলেও। বর্তমানে তরুণ প্রজন্মের কথা মাথায় রেখেই ইটালিয়ান স্টাইলে সুইটস তৈরি করেন বরকত আলি অ্যান্ড ব্রাদার্স। এই স্টাইলের চাহিদা খুব বেশি বলে জানান বরকত আলি অ্যান্ড ব্রাদার্স এর অন্যতম কর্ণধার নাদিম আলি।দোকানে এখনও রয়েছে বরকত আলির ব্যবহৃত সরঞ্জাম তার মধ্যে হলো ১০০ বছর পুরোনো কাঁচি।

কলকাতায় শীত ক্ষণিকের তাই শীত না থাকলেও যে সুটস পরা যাবে এমনি ভাবে তৈরি করেন বরকত আলি অ্যান্ড ব্রাদার্স এর দর্জিরা। প্যান্ট তৈরি করার মজুরি ৮০০ টাকা থেকে শুরু। শুধু ব্লেজার তৈরিতে পরে ৮ হাজার। সুট তৈরিতে মজুরি ৯ হাজারের কাছাকাছি। কাপড়ের দাম আলাদা। বর্তমানে অনেক দোকান আছে যেখানে রেডিমেড সুট পাওয়া যায় তবে মজুরি বেশি হলেও অনেকেরই পছন্দ বরকত আলি অ্যান্ড ব্রাদার্স এর পোশাক তৈরির স্টাইল। শুধু ভারতে নয় বাংলাদেশ, পাকিস্তান সহ বিদেশের বহু জায়গায় বরকত আলি অ্যান্ড ব্রাদার্স শাখা রয়েছে তবে অন্য নামে।