Date : 2023-02-02

স্কুলে স্কুলে বই দিবসের পাশাপাশি হল গ্র্যাজুয়েশন সেরিমনি। সংবর্ধনা পেয়ে খুশি পড়ুয়ারা।

নাজিয়া রহমান, সাংবাদিক : বছরের দ্বিতীয় দিন রাজ্যের স্কুলে স্কুলে পালিত হল বই দিবস। বই দিবসের পাশাপাশি এদিন পালন করা হয় গ্র্যাজুয়েশন সেরিমনি। ২ জানুয়ারি থেকে টানা এক সপ্তাহ স্টুডেন্ট উইক পালন করা হবে।

বেশ কয়েক বছর ধরে ২জানুয়ারি স্কুলে স্কুলে বই দিবস পালন করা হয়ে আসছে। এই দিন প্রাক প্রাথমিক থেকে উচ্চ প্রাথমিকের সব পড়ুয়াদের বই দেওয়া হয়। এবারও সেই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়ে ছিল। তবে এবার বই দিবসের পাশাপাশি গ্র্যাজুয়েশন সেরিমনিও পালন করা হয়। কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয়ে উচ্চ শিক্ষার পাঠ শেষ হয়ে যাওয়ার পর পড়ুয়াদের সাফল্যকে সমাবর্তন অনুষ্ঠানের মাধ্যমে সম্মান জানানোর রেওয়াজ বহুদিনের পুরাতন। কিন্তু স্কুলের পড়ুয়ারা প্রতিবছর নিঃশব্দে এক শ্রেণি থেকে অন্য অন্য শ্রেণিতে উত্তীর্ণ হয়ে যায়। কিন্তু এই শিক্ষাবর্ষ থেকে বদলে গেল সেই চিত্র। নতুন ক্লাসে ওঠার পর পড়ুয়ারা যেমন হাতে পেল নতুন বই তেমনই তাদের হাতে দেওয়া হয় শংসাপত্র। গ্র্যাজুয়েশন সেরিমনি অনুষ্ঠানের মাধ্যমে পড়ুয়াদের আগের শ্রেণিতে উত্তীর্ণ হওয়া এবং নতুন শ্রেণিতে উন্নীত হওয়া– দুই-ই পালন করা হয়। এই সম্বর্ধনা পেয়ে খুশি পড়ুয়ারা।

এই ‘গ্র্যাজুয়েশন সেরিমনি’ কি ভাবে পালন করা হবে ২০২২সালে তার ১৩দফা একটি গাইডলাইন প্রকাশ করে শিক্ষাদফতর। শিক্ষক শিক্ষিকাদের উপস্থিতিতে নানাবিধ অনুষ্ঠানের আয়োজন করার কথা উল্লেখ করা হয়। প্রতিটি ক্লাসের এই অনুষ্ঠানে প্রধান শিক্ষক বা শিক্ষিকাকে স্কুলের ইতিহাস এবং স্কুল পড়ুয়াদের জন্য রাজ্য সরকারের বিভিন্ন প্রকল্প ও পরিষেবার কথা আলোচনার মাধ্যমে তুলে ধরতে হবে। পাশাপাশি এক সপ্তাহব্যাপি স্টুডেন্ট উইক পালন করা হবে। যার মাধ্যমে হাউজ ব্যবস্থা, রিডিং হ্যাবিট, আনন্দ পরিসর, শিশু সংসদ –পড়ুয়াদের সামগ্রিক বিকাশের লক্ষ্যে স্কুলে আরও চারটি নতুন কার্যকলাপও করা হবে। সাত দিন ব্যাপি নানাবিধ অনুষ্ঠানের মাধ্যমে পালিত হবে এই স্টুডেন্ট উইক।