Date : 2024-04-18

বাদাম খেলে ওজন বৃদ্ধি পায়না। বরং ওজন হ্রাসে সাহায্য করে।

শাহিনা ইয়াসমিন, সাংবাদিক:- বাদাম নিয়ে আমাদের একটি ভ্রান্ত ধারণা রয়েছে। আমরা অনেকেই ভাবি বাদাম শরীরের ওজন বৃদ্ধিতে সাহায্য করে। ফলে বাদামকে আমরা খাদ্য তালিকা থেকে বাদ রাখি। কিন্তু এ ধারণাটি পুরো সত্য নয়। বরং বিভিন্ন গবেষণায় বলা হচ্ছে, বাদাম শরীরের ওজন কমাতে সহায়তা করে। এমনকি ওজন বৃদ্ধির ঝুঁকি কমাতেও ভূমিকা রাখে।

বলা হচ্ছে, অলিভ অয়েলের চেয়ে বাদাম দ্রুত ওজন হ্রাসে সাহায্য করে। সকালের জলখাবারে বাদাম রাখা যেতেই পারে। কারণ এক মুঠো বাদাম খেয়ে জল খেয়ে নিলেই পেট ভরে যায়। ফলে খাবার কম খাওয়া হয়, যা ওজন কমাতে সহায়তা করে।

পুষ্টিবিদদের মতে, বাদামে থাকা ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিড, প্রোটিন ও ফাইবারের মিশ্রণ ক্ষুধা দমনে সহায়তা করে। বাদাম অনেক ধরনের হয়ে থাকে, যেমন আখরোট, কাজু, পেস্তা, কাঠবাদাম ইত্যাদি। ওজন কমানোর জন্য কাজু ও কাঠবাদাম খুবই উপকারী। ১৬-১৮টি কাজু বাদামে ৫ গ্রাম প্রোটিন, ১৩ গ্রাম ফ্যাট থাকে। অন্যদিকে ৪৯টি পেস্তা বাদামে ৬ গ্রাম প্রোটিন, ১৩ গ্রাম ফ্যাট রয়েছে। অন্যান্য বাদামের তুলনায় কাজু বাদামে ক্যালরির পরিমাণ তুলনামূলক কম। তবে ক্যালসিয়াম বেশি থাকে, যা সামগ্রিকভাবে স্বাস্থ্যের জন্য খুবই উপকারী। এছাড়া এ বাদাম ভিটামিন ‘ই’ ও ফাইবারসমৃদ্ধ, যা বিপজ্জনক প্রদাহরোধে সাহায্য করে, পাশাপাশি বয়স সম্পর্কিত স্মৃতিশক্তি হ্রাসজনিত সমস্যা কমাতেও ভূমিকা রাখে। চীনাবাদামে মস্তিষ্কের জন্য স্বাস্থ্যকর ফ্যাট ও ভিটামিন ‘ই’ থাকে। ২৮টি চীনাবাদামে প্রায় ১৭০ ক্যালরি, ৭ গ্রাম প্রোটিন ও ১৪ গ্রাম ফ্যাট থাকে।

বাদামে অতিরিক্ত ফ্যাট থাকার কারণে ভয়ে অনেকে বাদাম খেতে চান না। কিন্তু চিকিৎসকরা বলছেন, বাদামে থাকা ফ্যাট আমাদের শরীর পুরো গ্রহণ করতে পারে না। এ কারণে বাদাম খেলে ওজন বৃদ্ধির কোনো ভয় থাকে না। যেকোনো ধরনের বাদামে পটাশিয়াম, ম্যাগনেশিয়ামসহ প্রয়োজনীয় কিছু খনিজ রয়েছে। বাদামে শর্করার পরিমাণ খুব সামান্য। ফলে বাদাম খেলে ওজন বৃদ্ধি পায় না। কাজেই যারা অতিরিক্ত ওজনের সমস্যায় ভুগছেন, তারা তাদের খাদ্য তালিকায় বাদাম যুক্ত করতে পারেন।