Date : 2024-07-24

৩ শতাংশ ডিএ ঘোষণা সরকারের। না খুশ রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের সংগঠন

সঞ্জু সুর, সাংবাদিক : রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের জন্য তিন শতাংশ মহার্ঘ্য ভাতা ঘোষণা করলেন চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য। বুধবার রাজ্য বিধানসভায় বাজেট পেশের সময় তিনি এই ঘোষণা করেন। যদিও অর্থমন্ত্রীর এই ঘোষণায় খুশি নন আন্দোলনরত রাজ্য সরকারি কর্মচারিরা।

ডিএ বা মহার্ঘ্য ভাতার দাবিতে গত কুড়ি দিন ধরে অবস্থান আন্দোলন চালাচ্ছেন রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের ৩৫ টি সংগঠন নিয়ে গঠিত সংগ্রামী যৌথ মঞ্চ। কেন্দ্রীয় হারে ডিএ-র দাবিতে মামলা চলছে আদালতেও। এমতাবস্থায় বুধবার রাজ্য বাজেট পেশের সময় অর্থমন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য ডিএ-র কথা ঘোষণা করেন। তিনি বলেন, আগামি মার্চ মাস থেকেই এই বর্ধিত মহার্ঘ্য ভাতা বেতনের সঙ্গে যুক্ত হবে। যদিও বাজেট ভাষণের যে কপি সদস্যদের মধ্যে বিলি করা হয়েছে তাতে এই ডিএ-র বিষয়টি ছিলো না। দেখা যায় অর্থমন্ত্রী যখন বাজেট পড়ছেন তখন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় চিরকুটে কিছু একটা লিখে দেন। সেই চিরকুটটি মন্ত্রী অরুপ বিশ্বাস চন্দ্রিমা ভট্টাচার্যের হাতে দেন। পরে চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য সেই চিরকুট দেখে ডিএ-র কথা বলেন। এদিকে সরকারের এই তিন শতাংশ ডিএ ঘোষণায় একদমই খুশি নন আন্দোলনরত রাজ্য সরকারি কর্মচারীরা। তাদের বক্তব্য, “আমরা এই ঘোষণায় খুশি ন‌ই। এটা মরুভূমিতে একফোঁটা জল এর মতো। আমাদের আন্দোলন চলবে।” তবে অর্থমন্ত্রীর এই ঘোষণার পর পরই রাজ্য বিধানসভায় বেশকিছু সরকারি কর্মিদের আবীর খেলতে দেখা যায়। তারা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও অর্থমন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্যের নামে জয়ধ্বনি দিতে থাকেন। রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের এই অংশের মতে, সরকারকে সবদিক বিবেচনা করেই সিদ্ধান্ত নিতে হয়। আর কিছু না পাওয়ার থেকে কিছু পাওয়া তো ভালো। এদিকে মহার্ঘ্য ভাতা নিয়ে কেন্দ্র সরকারি কর্মচারীদের সঙ্গে রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের যে ফারাক (এখনও প্রায় ৩২ শতাংশ) সেই ফারাক এর কথা মেনে নিয়ে নবান্নে অর্থ দফতরের অন্যতম এক শীর্ষ আমলা বলেন, “আমাদের উন্নয়নমূলক প্রকল্প বা কর্মসূচির কথাগুলোকেও মাথায় রাখতে হয়। এখন‌ই কেন্দ্রীয় হারে ডিএ দিতে গেলে সেগুলো হঠাৎ করে বন্ধ করে দিতে হবে। একটা কল্যানকর রাজ্যের পক্ষে সেটা কি সম্ভব ?” এই প্রশ্ন তোলার পাশাপাশি তিনি অবশ্য এটাও বলেন যে আমরা চেষ্টা করছি ধীরে ধীরে এই বৈষম্যটা (কেন্দ্র-রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের বেতনের ফারাক) মিটিয়ে দিতে। তবে একটু সময় তো লাগবেই।